যশোরে লাশ নিয়ে মিছিল, শহরে ইজিবাইক বন্ধ

আপডেট: 01:59:39 14/05/2018



img
img

স্টাফ রিপোর্টার : যশোরে জেলা তরুণলীগ এবং অটোবাইক কল্যাণ সোসাইটির সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ মনিরুল ইসলাম ওরফে মনিরুল শেখ হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে শহরে ইবিজবাইক চলাচল বন্ধ রয়েছে।
লাশের ময়নাতদন্ত আজ সোমবার সকালে সম্পন্ন হয়েছে।  তার কফিন নিয়ে তরুণলীগ শহরে মিছিল করেছে।
শহরে ইজিবাইক চলাচল বন্ধ থাকায় চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন সাধারণ মানুষ। রিকশা, ভ্যান এবং জ্বালানিতেলচালিত থ্রিহুইলার চালকরা ইচ্ছামতো ভাড়া আদায় করছেন যাত্রীদের কাছ থেকে।
রোববার দিবাগত রাতে যশোর শহরের পালবাড়ি ভাস্কর্য মোড়ে সন্ত্রাসীদের বোমা ও ধারালো অস্ত্রের আঘাতে নৃশংসভাবে খুন হন তরুণলীগ নেতা মনিরুল।
এদিকে, সকাল থেকে শহরে ইজিবাইক চলাচল বন্ধ থাকায় চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন সাধারণ যাত্রীরা। অতিরিক্ত রিকশা ও ভ্যান ভাড়া দাবি করায় বিভিন্ন স্থানে যাত্রীদের সঙ্গে যান চালকদের বচসা হতে দেখা যাচ্ছে। শহরের গুরুত্বপূর্ণ মোড়গুলোতে যাত্রীদের অস্বাভাবিক ভিড় রয়েছে।
শহরতলীর ঝুমুঝুমপুরের বাসিন্দা দিনমজুর আবুল হোসেন সুবর্ণভূমিকে জানান, শ্রম দিতে তিনি পুলেরহাটে যাচ্ছেন। শহরে ইজিবাইক চলছে না বিধায় দশ টাকার স্থলে ২০ টাকা ভ্যান ভাড়া দিতে হয়েছে।
নতুনহাট পাবলিক কলেজের শিক্ষিকা দিল আফরোজ সুবর্ণভূমিকে বলেন, 'প্রত্যেকদিন কলেজে যাই দশ টাকা দিয়ে ইজিবাইকে। কিন্তু আজকে ৫০ টাকা দেওয়া লাগছে। এটি আমার জন্যে বাড়তি সমস্যা।'
শহরের শংকরপুর এলাকার বাসিন্দা প্রবাল দাস সুবর্ণভূমিকে বলেন, ঈদগাহ মোড় থেকে শংকরপুর বাসস্ট্যান্ড যেতে আজ ভাড়া গুণতে হচ্ছে ৫০ টাকা। কিন্তু অন্যদিন দশ টাকা লাগতো।
রিকশাচালক আকবার আলী দাবি করেন, 'প্রত্যেকদিন ৩০০ টাকা রিকশা ভাড়া দিতে হয় মালিককে। এই গরমে ভাড়া যদি একটু বেশি না নিই তো খাবো কী?'
ভ্যানচালক জাকির হোসেন সুবর্ণভূমিকে বলেন, 'ট্রাফিক পুলিশ শহরে ভ্যান ঢুকতে দেয় না। আজ সুযোগ পাইছি- দু’পয়সা তো ধরে নেবোই।'
যশোর জেলা অটোবাইক চালক সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান সুবর্ণভূমিকে বলেন, 'আমাদের সংগঠনের নেতা মনিরুল খুন হয়েছেন। সেকারণে আমরা সকাল থেকে ইজিবাইক চলাচল বন্ধ রেখেছি।'
যশোর জেলা অটোবাইক চালক সোসাইটির সভাপতি আব্দুর সবুর সুবর্ণভূমিকে বলেন, 'গতরাতে আমাদের সংগঠনের সাংগঠনিক সম্পাদক মনিরুল খুন হন। তিনদিন আগে উপশহরে ইজিবাইকচালক তুরান খুন হলো। পুলিশ এখন পর্যন্ত কাউকে আটক করতে পারলো না। এই দুইজনের খুনিদের আটক এবং দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে আমরা শহরে ইজিবাইক চলাচল বন্ধ রেখেছি।'
জেলা তরুণলীগের সভাপতি আসাদুজ্জামান আসাদ সুবর্ণভূমিকে বলেন, হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের আটক ও বিচারের দাবিতে মনিরুলের লাশ নিয়ে শহরে বিক্ষোভ মিছিল করা হয়েছে।
যশোরের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর সাখাওয়াৎ হোসেন সুবর্ণভূমিকে বলেন, 'সকাল থেকে শহরে ইজিবাইক চলাচল করছে না। কেনো চলাচল করছে না- তা বলতে পারবো না। জনসাধারণের কাছ থেকে রিকশা ও ভ্যানচালকরা বেশি ভাড়া আদায় করলেও শহরে কোনো যানজট নেই।'
জানতে চাইলে কোতয়ালী থানার ওসি আজমল হুদা সুবর্ণভূমিকে বলেন, মনিরুল হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতদের আটকে পুলিশ তৎপর রয়েছে।

আরও পড়ুন