যশোর বোর্ডের আইসিটি পরীক্ষা বাতিল

আপডেট: 06:52:35 12/02/2019



img

স্টাফ রিপোর্টার : এসএসসি যশোর শিক্ষাবোর্ডে আজকের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির নৈর্ব্যক্তিক পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে। 
যশোর শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মাধবচন্দ্র রুদ্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 
যশোর প্রিপারেটরি হাইস্কুল কেন্দ্রের পরীক্ষার্থী কৌশিক তাহসান জানায়, আজ মঙ্গলবার সকাল দশটায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির নৈর্ব্যক্তিক পরীক্ষা শুরু হয়।  তাদের কক্ষে বোর্ডের 'ঘ' সেট প্রশ্নপত্র দেওয়া হয়।  এই প্রশ্নপত্রের প্রথম পৃষ্ঠায় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি এবং অপর পৃষ্ঠায় ক্যারিয়ার শিক্ষার প্রশ্নপত্র ছিল।  পরীক্ষার প্রায় ২০ মিনিট পর সেই প্রশ্নপত্র নিয়ে যান কক্ষ পরিদর্শকরা।   এরপর 'গ' সেটে তাদের পরীক্ষা নেওয়া হয়। 
নৈর্ব্যক্তিক এই পরীক্ষা ২৫ নম্বরের এবং সময় আধা ঘণ্টা। 
জানতে চাইলে যশোর কালেক্টরেট স্কুলের অধ্যক্ষ মোদাচ্ছের হোসেন বলেন, আমি এ ধরনের কোনো কথা শুনিনি।   তবে, যারা ঘ প্রশ্ন সেটে পরীক্ষা দিয়েছিল, পরে তাদের সেট পরিবর্তন করে পরীক্ষা নেওয়া হয়েছে বলে জানি। 
যশোর শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মাধবচন্দ্র রুদ্র বলেন, বিজি প্রেসের মুদ্রণজনিত ত্রুটির কারণে আজকের পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে।   একটু পরেই পরীক্ষা বাতিল সংক্রান্তে নোটিস দেওয়া হবে। 
পরবর্তীতে পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা করা হবে বলে তিনি জানান।

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি জানান, মঙ্গলবার এসএসসির তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ের বহুনির্বাচনী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এতে ২৫টি নির্বাচনী প্রশ্নে মার্ক ছিল ২৫। কিন্তু নির্ধারিত সময়ে বিতরণ করা প্রশ্নে দেখা যায়, শুধু ঘ সেট প্রশ্নে ভুলটা ধরা পড়ে। প্রথম পাতায় ১ থেকে ১২ নম্বর প্রশ্ন এসেছে সংশ্লিষ্ট বিষয় থেকে। এছাড়া দ্বিতীয় পাতায় ১৩ থেকে ২৫ পর্যন্ত প্রশ্নগুলো এসেছে কর্মমুখী শিক্ষা থেকে।
বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর এ নিয়ে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলা পরীক্ষা কেন্দ্রগুলো শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের হইচই শুরু হয়। তারপরও এ ভুল প্রশ্নে পরীক্ষা হয়। পরীক্ষা-সংশ্লিষ্টরা বিষয়টি নিয়ে বোর্ড কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। এর কিছুক্ষণ পরেই পরীক্ষাটি বাতিল ঘোষণা করে বিবৃতি দেন বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক প্রফেসর মাধবচন্দ্র রুদ্র।
কালীগঞ্জ শহরের সরকারি নলডাঙ্গা ভূষণ পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের সচিব ও প্রধান শিক্ষক মকবুল হোসেন তোতা বলেন, ‘আমার দৃষ্টিগোচর হওয়ার সাথে সাথে বোর্ডের কন্ট্রোলার স্যারকে অবহিত করি। পরে পরীক্ষাটি বাতিল করা হয়েছে। তবে বাতিল হওয়া পরীক্ষাটি কবে অনুষ্ঠিত হবে তা এখনো জানানো হয়নি।’