রোহিঙ্গা শিশুদের পাশে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া

আপডেট: 01:44:03 22/05/2018



img

সুবর্ণভূমি ডেস্ক : রোহিঙ্গা শিশুদের ‘মুখভরা হাসির আড়ালে নিঃসীম শূন্যতা’ দেখে তাদের রক্ষায় বিশ্ববাসীকে এগিয়ে আসার আহ্বান রাখলেন অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া।
জাতিসংঘ সংস্থা ইউনিসেফের শুভেচ্ছা দূত হিসেবে সোমবার বাংলাদেশে নেমে কক্সবাজারে রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবির ঘুরে দেখেন প্রিয়াঙ্কা, বলিউড ছাড়িয়ে যার পদচারণা এখন হলিউডেও।
চার দিনের সফরের প্রথম দিন টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে যান তিনি।
শরণার্থীদের অবস্থা সরেজমিনে দেখেন প্রিয়াঙ্কা, কথা বলেন রোহিঙ্গা শিশুদের সঙ্গে। রুপালি পর্দার এই তারকাকে কাছে পেয়ে মেতে ওঠে শিশুরাও।
প্রথম দিনের অভিজ্ঞতায় প্রিয়াঙ্কা শরণার্থীদের মধ্যে বিশাল সংখ্যক শিশু থাকার বিষয়টি তুলে ধরে লিখেছেন, রোহিঙ্গাদের এই প্রজন্মের শিশুগুলোর সামনে ভবিষ্যৎ বলে কিছু নেই।
“যদিও তারা হাসছিল, তবে তাদের চোখে আমি দেখেছি নিঃসীম শূন্যতা।”
প্রিয়াঙ্কা ইনস্টাগ্রামে লিখেছেন, “এখানে মানবিক সঙ্কট যে কতটা গভীর, তার নজির এই শিশুরা। আমাদের সাহায্য তাদের খুবই দরকার।”
বিশ্বে এই সময়ে শরণার্থীদের মধ্যে সবচেয়ে বড় জনগোষ্ঠী রোহিঙ্গাদের সহায়তায় ইউনিসেফের পাশে বিশ্ববাসীকে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়ে এই অভিনেত্রী বলেন, “এই শিশুগুলোই আমাদের ভবিষ্যৎ।”
মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে নির্যাতনের মুখে গত বছরের আগস্ট থেকে এই পর্যন্ত যে সাত লাখের মতো মুসলিম রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে, তার ৬০ শতাংশই শিশু।
মানবিক কারণে বাংলাদেশ এই রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়েছে, তাদের রাখা হয়েছে কক্সবাজারে শরণার্থী শিবিরে।
শরণার্থী শিবিরে গাদাগাদি করে রোহিঙ্গাদের থাকার বিষয়টি বিশ্ববাসীর সামনে তুলে ধরেন প্রিয়াঙ্কা। সামনে বর্ষা মৌসুমে শরণার্থী শিবিরে সঙ্কট আরো বাড়িয়ে তুলবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি।
যুক্তরাজ্যের প্রিন্স হ্যারির সঙ্গে বান্ধবী মেগান মার্কলের বিয়েতে যোগ দেওয়ার দুই দিনের মধ্যে ইউনিসেফের মিশন নিয়ে বাংলাদেশে এলেন প্রিয়াঙ্কা।
সোমবার সকালে ঢাকায় শহাজালাল বিমানবন্দরে নামেন তিনি। সেখান থেকে রওনা হয়ে বিকেলে তিনি কক্সবাজার পৌঁছান বলে জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আফরুজুল হক টুটুল জানান।
তিনি বলেন, কক্সবাজার বিমানবন্দর থেকে সড়কপথে ইনানীতে পৌঁছান প্রিয়াঙ্কা। সেখানে তিনি একটি হোটেলে অবস্থান করছেন।
হোটেল থেকে বেলা চারটার দিকে শরণার্থী শিবিরে পৌঁছার পর প্রিয়াঙ্কা প্রথমে স্থানীয় ইউনিসেফ কার্যালয়ে যান। পরে রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বিভিন্ন ব্লক ঘুরে দেখেন।
রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনের সময় সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে রাজি হননি প্রিয়াঙ্কা।
পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, চার দিনের সফরে বাংলাদেশে এসেছেন এ অভিনেত্রী। মঙ্গলবার সকালে উখিয়ার বালুখালী ও জামতলী রোহিঙ্গা ক্যাম্প এবং টেকনাফ রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করবেন। বুধবার উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করবেন তিনি।
সূত্র : বিডিনিউজ

আরও পড়ুন