লোহাগড়ায় যুবদল নেতার রহস্যজনক মৃত্যু

আপডেট: 03:52:02 06/01/2017



img

লোহাগড়া (নড়াইল) প্রতিনিধি : নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলা যুবদলের যুগ্ম-সম্পাদক আশরাফ মল্লিকের (৪২) রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। তিনি উপজেলার চরমল্লিকপুর গ্রামের কুটি মল্লিকের ছেলে।
খবর পেয়ে শুক্রবার সকালে পুলিশ আশরাফের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নড়াইল সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।
স্ত্রী সোহেলী বেগম (৩১) সাংবাদিকদের জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তার স্বামী বাসাবাড়ি থেকে বের হন। পরে তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে একাধিক বার রিং করা হলেও কেউ রিসিভ করেননি। শুক্রবার ভোরে এলাকাবাসীর মাধ্যমে তিনি আশরাফের মৃত্যুর খবর পান।
সোহেলী তার স্বামীকে পরিকল্পিতভাবে খুন করা হয়েছে বলে দাবি করেন। একই সঙ্গে তদন্ত করে ‘হত্যায়’ জড়িতদের বিচারের দাবি জানান তিনি।
এলাকাবাসী জানান, যুবদল নেতা আশরাফ লোহাগড়া শহরের মদিনাপাড়ায় শ্বশুর ফরিদ শেখের বাড়িতে বসবাস করতেন। আশরাফের লাশ লোহাগড়ার সিরাজুল ইসলাম সিরুর নির্মাণাধীন বাড়িতে পড়ে ছিল।
খবর পেয়ে শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে লোহাগড়া থানার এসআই জাফর আহম্মদের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নড়াইল সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।
লোহাগড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জাহাঙ্গীর আলম যুবদল নেতার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ‘আশরাফের নামে চরমল্লিকপুর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা ফায়েক মাস্টার হত্যাচেষ্টাসহ গ্রাম্য দাঙ্গা-হাঙ্গামার তিনটি মামলা রয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে আশরাফের মৃত্যুরহস্য উদ্ঘাটন সহজ হবে।’

আরও পড়ুন