শিশু চুরি তদন্তে হাসপাতালের কমিটি

আপডেট: 08:46:58 23/11/2016



img

স্টাফ রিপোর্টার : নয় দিন বয়সী শিশু চুরির ঘটনার তিনদিনের মাথায় যশোর জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে।
বুধবার হাসপাতালের মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. মোসলেম উদ্দিনকে সভাপতি করে তিন সদস্যের এই তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। গাইনি বিশেষজ্ঞ ডা. রিনা ঘোষকে সদস্য সচিব এবং ডা. মশিউর রহমানকে কমিটির সদস্য করা হয়েছে। কমিটিকে আগামী ২৪ ঘণ্টার (বৃহস্পতিবার) মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।
হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. শ্যামলকৃষ্ণ সাহা বলেন, ‘পুলিশকে সহযোগিতা করাসহ হাসপাতালের কেউ ওই ঘটনায় জড়িত কি না, তা খতিয়ে দেখতে এই তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। যাতে করে ভবিষ্যতে এই ধরনের কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে।’
গত ২০ নভেম্বর সন্ধ্যারাতে হাসপাতালের গাইনি ওয়ার্ডে ভর্তি তহমিনা বেগমের নয় দিনের শিশুসন্তানটি কৌশলে চুরি করে নিয়ে যায় এক নারী। বোরখাধারী ওই নারী চিকিৎসা সহায়তার টাকা দেওয়ার কথা বলে শিশুটি ও তার নানির ছবি তুলতে নিয়ে যায়। পরে শহরের কুইন্স হসপিটালে গিয়ে নানি ফিরোজাকে একটি কক্ষে পাঠায় ওই নারী। আর শিশুটিকে তার কাছে রেখে দেয়। ওই কক্ষ থেকে ফিরে এসে ফিরোজা নাতি ও ওই নারীকে আর পাননি।
এই রাতে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ আটক করে নুরুল নামে জেনারেল হাসপাতালের এক কর্মচারীকে। পর দিন তাকে আসামি করে থানায় মামলা হয়। কিন্তু রোগীদের খাদ্য সরবরাহে বিঘœ সৃষ্টি হওয়ায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বন্ড দিয়ে ওই কর্মচারীকে ছাড়িয়ে আনেন।

আরও পড়ুন