শ্লীলতাহানির মামলা তুলে নিতে বাদীকে ‘হুমকি’

আপডেট: 03:31:58 08/07/2018



img

চৌগাছা (যশোর) প্রতিনিধি : চৌগাছায় শিশু ছাত্রীর শ্লীলতাহানির মামলা তুলে নিতে বাদীকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ করা হচ্ছে। শনিবার দুপুরে স্থানীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে মামলার বাদীর ভাই আক্তারুজ্জামান এই অভিযোগ করেন।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, ‘গত ১২ ফেব্রুয়ারি আমার ছোট ভাইয়ের প্রথম শ্রেণিপড়ুয়া ছাত্রীকে (৭) আব্দুল মজিদ (৬৫) নামে এক লম্পট শ্লীলতাহানির চেষ্টা করে। পরের দিন শিশুটির বাবা ও আমার ছোট ভাই মো. বখতিয়ার বাদী হয়ে মজিদের বিরুদ্ধে চৌগাছা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা করেন। মামলা নম্বর-১৭, তারিখ ১৩-০২-১৮। পরে আমার ভাইজি আদালতে ম্যাজিস্ট্রেটের সামনে ১৬৪ ধারায় সাক্ষ্য প্রদান করে। তদন্তকারী কর্মকর্তা অভিযোগের সত্যতা পেয়ে কোর্টে চার্জশিট দাখিল করেছেন।’
‘এদিকে বাদীর পরিবারকে শায়েস্তা করার জন্য মামলার আসামি মামলার বাদী ও তার ভাইদের নামে কোর্টে একটি মিথ্যা অস্ত্র ও চাঁদাবাজির মামলা করেছেন; যা এখন তদন্তাধীন। শ্লীলতাহানির মামলাটি থানায় রেকর্ড হওয়ার পর থেকেই বাদীকে বিভিন্নভাবে হুমকি দিচ্ছে আসামি পক্ষের গুন্ডা বাহিনী।’
লিখিত বক্তব্যে আরো বলা হয়, ‘আগামী ৯ জুলাই মামলার আসামিদের কোর্টে হাজিরা রয়েছে। ৮ জুলাইয়ের মধ্যে মামলাটি তুলে নিতে এলাকার মরহুম গরিব উল্লাহর ছেলে মো. আব্দুস সামাদ (৫০) এবং মরহুম বাদশার ছেলে কেরফা আয়নাল ওরফে ঢালি আয়নালের মতো চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ীরা বাদীর ভাই আক্তারুজ্জামান ও মামলার সাক্ষীদেরকে প্রাণনাশের হুমকিসহ নানা রকম ভয় ভীতি প্রদর্শন করছে।’
এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘বাদীর গুন্ডাবাহিনীর ভয়ে আমরা থানায় অভিযোগ করতে পারছি না। তবে মামলার তদন্তকারী অফিসারকে মৌখিকভাবে জানানো হয়েছে।’
পরে যোগাযোগ করা হলে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা চৌগাছা থানার এএসআই জামাল বলেন, ‘বাদীপক্ষকে ভয়-ভীতি দেখানোর ব্যপারে আমার কিছু জানা নেই। অভিযোগ পেলে ও তার সত্যতা প্রমাণ হলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

আরও পড়ুন