সংসদ ভেঙে নির্বাচন দিন : খুলনায় ফখরুল

আপডেট: 08:48:41 10/03/2018



img

খুলনা অফিস : বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সংসদ ভেঙে দিয়ে সহায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন দেওয়ার দাবি পুনর্ব্যক্ত করেছেন। দলের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে আজ শনিবার খুলনায় আয়োজিত বিভাগীয় জনসভায় তিনি এ কথা বলেন।
খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিভাগীয় শহরগুলোতে সমাবেশের কর্মসূচি দেয় বিএনপি। তার প্রথম জনসভা আজ অনুষ্ঠিত হলো খুলনায়। নগরীর হাদিস পার্কে অনুমতি না পেয়ে দলীয় কার্যালয়ের সামনেই এ সমাবেশ করা হয়।
সমাবেশে বিএনপি মহাসচিব বলেন, সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে জেগে উঠেছে খুলনার মানুষ। খুলনাবাসীকে যে কোনো ত্যাগ স্বীকারের প্রস্তুতি নেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।
মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আজকে আমরা এই খুলনা দিয়ে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য জনগণকে সঙ্গে নিয়ে যে আন্দোলন শুরু করলাম এটা শুধুমাত্র দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য নয়। এর সূচনা হলো বাংলদেশের গণতন্ত্রের মুক্তির জন্য। পার্লামেন্ট ভেঙে দেওয়ার দাবি জানাচ্ছি এবং অবিলম্বে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের তত্ত্বাবধানে একটি সুষ্ঠু, অবাধ নির্বাচনের জন্য আমরা আজকে জোর দাবি জানাচ্ছি।’
দলের স্থায়ী কমিটির দুই সদস্য ড. আবদুল মঈন খান এবং আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেন, শুধু খুলনা নয়, সারা বাংলাদেশের মানুষ সরকারের অন্যায় অত্যাচরের জবাব দেওয়ার জন্য প্রস্তুত।  আওয়ামী লীগকে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ডে বিএনপির সঙ্গে লড়াইয়ে আসারও চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেন তারা।
মঈন খান বলেন, ‘আওয়ামী লীগ আজকে প্রশাসনকে, পুলিশকে ব্যারাকে রেখে বিএনপিকে মোকাবিলা করুক। আমরা দেখব কে হারে কে জেতে?’
আমীর খসরু বলেন, ‘আমরা আমাদের নেত্রীর নির্দেশে শান্তিপূর্ণ, নিয়মতান্ত্রিক, গণতান্ত্রিক আন্দোলনের মাধ্যমে রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসকে পরাজিত করবো ইনশাল্লাহ।’
পর্যায়ক্রমে অন্যান্য বিভাগীয় শহরগুলোতেও সমাবেশ করার কথা রয়েছে বিএনপির। এর পরের সমাবেশ হওয়ার কথা ঢাকায়।
গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন বিশেষ আদালত। এ ছাড়া বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ পাঁচ আসামিকে দশ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড এবং দুই কোটি দশ লাখ টাকা করে জরিমানা করা হয়।
মামলার অন্য আসামিরা হলেন মাগুরার সাবেক সংসদ সদস্য (এমপি) কাজী সালিমুল হক কামাল, ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক সচিব কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী ও প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মমিনুর রহমান। এদের মধ্যে তারেক রহমান, কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী ও মমিনুর রহমান পলাতক।
এরপর থেকে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল, অবস্থান, অনশন, মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে আসছে বিএনপির নেতাকর্মীরা।

আরও পড়ুন