সাগরের একটি হুইল চেয়ার দরকার

আপডেট: 07:06:45 20/01/2019



img

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি : শারীরিক প্রতিবন্ধী সাগর হোসেন। জন্মগতভাবে প্রতিবন্ধী সাগর ২০১৯ সালের দাখিল পরীক্ষার্থী।
সাগর কালীগঞ্জ উপজেলার পাতবিলা দাখিল মাদরাসার সাধারণ বিভাগ থেকে পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে। ২ ফেব্রুয়ারি তার পরীক্ষা শুরু হবে।
সাগর উপজেলার শিমলা-রোকনপুর ইউনিয়নের পাতবিলা গ্রামের সামাউল ইসলামের ছেলে। বাবা একজন দরিদ্র কৃষক। জমাজমি বলতে দুই বিঘা কৃষিজমি ছাড়া কিছু নেই। গত পাঁচ মাস হলো জমি বন্ধক রেখে ও কয়েকটি এনজিও থেকে ঋণ নিয়ে মালয়েশিয়া গেছেন সামাউল। তবে আয়-রোজগারের পথ এখনো ধরতে পারেননি তিনি।
সুরাইয়া নামে সাগরের একটি বোন রয়েছে। সে একই মাদরাসার অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী। সাগর শারীরিক প্রতিবন্ধী হওয়ায় তার ছোট বোন সুরাইয়া হুইল চেয়ার ঠেলে প্রতিদিন তাকে মাদরাসায় নিয়ে আসে। তার মাদরাসায় যাওয়া-আসায় সহপাঠীরাও সহযোগিতা করে। যে হুইল চেয়ারটিতে সাগর যাওয়া আসা করে সেটি অনেক পুরনো হওয়ায় ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এখন পরীক্ষার সময় তার নতুন একটি হুইল চেয়ার দরকার। কিন্তু এনজিওর কিস্তি আর সংসারের খরচ চালাতে হিমশিম খাচ্ছে সাগরের পরিবার। ফলে তার পক্ষে নতুন হুইল চেয়ার কেনা কঠিন।
পাতবিলা দাখিল মাদরাসার সুপার মো. শহীদুজ্জামান জানান, সাগর মোটামুটি ভালো ছাত্র। প্রতিবন্ধী হওয়ায় অপরের সহযোগিতা ছাড়া হাঁটাচলা করতে পারে না। তার বাবা দরিদ্র হওয়ায় অনেক কষ্ট করে ছেলেকে লেখাপড়া করাচ্ছেন। এখন একটি নতুন হুইল চেয়ার হলে সাগরের যাতায়াতে সুবিধা হয়।