সাতক্ষীরায় দলিল লেখক সমিতির সেক্রেটারি সাসপেন্ড

আপডেট: 12:54:56 01/02/2018



img

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি : জমির শ্রেণি পরিবর্তন করে রাজস্ব ফাঁকি দেওয়ার প্রাথমিক সত্যতা পাওয়ায় সাতক্ষীরা সদর দলিল লেখক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনিকে সাময়িক বরখাস্ত (সাসপেন্ড) করা হয়েছে।
সাতক্ষীরা জেলা রেজিস্ট্রার মুন্সি রুহুল ইসলাম গত রোববার এক চিঠিতে তাকে সাসপেন্ড করেন। এছাড়া কেন তার লাইসেন্স বাতিল করা হবে না, তা জানতে চেয়ে চিঠি প্রাপ্তির সাত দিনের মধ্যে জবাব দিতে বলা হয়েছে।
সাতক্ষীরা সদর সাব রেজিস্ট্রি অফিস সূত্রে জানা গেছে, দলিল লেখক মো. মনিরুজ্জামান মনির বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি ৯/২০০৬) ১২৯/১৫, ৯১৩৩/১৫, ৯৪০৬/১৫ এবং ৮৬৪২/১৫ নম্বর দলিলের জমির শ্রেণি পরিবর্তন (ডাঙা শ্রেণির বদলে বিলান, বাস্তুর বদলে ডাঙা লিখে) চার লাখ ২৯ হাজার ৯১৬ টাকার রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে নিজে পকেটস্থ করেছেন; যা চরম অপরাধ ও রেজিস্ট্রেশন আইন ১৯০৮ ধারা ৮০ জির অধীন প্রণীত দলিল লেখক (সনদ) বিধিমালার বিধি ১২-এর পরিপন্থী। এই অভিযোগে তাকে সাময়িক বরখাস্ত এবং কারণ দর্শানোর নোটিস দেওয়া হয়।
একাধিক দলিল লেখক জানিয়েছেন, মনিরুজ্জামান মনি সাতক্ষীরা সদর সাব রেজিস্ট্রি অফিস চত্বরে অবস্থিত দলিল লেখক সমিতির সাধারণ সম্পাদক। তিনি ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে শ্রেণি বদল করে লাখ লাখ টাকার মালিক হয়েছেন। শুধু ওই চারটি দলিল নয়, সঠিকভাবে তদন্ত করলে আরো অনেক দলিল পাওয়া যাবে, যেখানে তিনি একই ধরনের কাজ করেছেন।
আরো কয়েক দলিল লেখক একইভাবে দলিলের শ্রেণি বদল করে অঢেল সম্পত্তি মালিক হয়েছেন বলে জানিয়েছেন তাদের সহকর্মীরা।
সাতক্ষীরা জেলা রেজিস্ট্রার মুন্সি রুহুল ইসলাম জানান, প্রাথমিক তদন্তে মনিরুজ্জামান মনির বিরুদ্ধে রাজন্ব ফাঁকির অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাকে সাময়িক বরখাস্ত করে কারণ দর্শানোর নোটিস দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন