সাতক্ষীরায় বহিরাগতদের ডেকে পরীক্ষার্থীকে মারপিট!

আপডেট: 08:07:26 14/01/2018



img

সাতক্ষীরা প্র‌তি‌নি‌ধি : সাতক্ষীরার কারিমা স্কুলের জোবায়ের হোসেন নামে এক এসএসসি পরীক্ষার্থীকে পরীক্ষার হল থেকে বের করে পিটিয়ে আহত করার অভিযোগ উঠেছে শিক্ষক আব্দুল মালেকের বিরুদ্ধে।
রোববার সকালে স্কুলের ২০১৮ সালের মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী এসএম জোবায়ের হোসেন মডেল টেস্ট দিতে গেলে তাকে পরীক্ষার হল থেকে পিটিয়ে বের করে দেওয়া হয়।
শিক্ষার্থীর বাবা এসএম শহিদুল ইসলাম বলেন, 'আমার ছেলে জোবায়ের হোসেনের ক্লাস নাইনে বোর্ড রেজিস্ট্রেশনের সময় স্কুল কর্তৃপক্ষ বয়স ভুল করে। পরে স্কুল কর্তৃপক্ষকে একাধিকবার বলা হলেও তা ঠিক করে দিতে গড়িমসি করে। আজ আমার ছেলে পরীক্ষা দিতে গেলে তাকে হল থেকে বের করে দেওয়া হয়। তাকে কেন পরীক্ষা দিতে দেওয়া হবে না জানতে চাইলে প্রধান শিক্ষক আবু তাহেরের নির্দেশে স্কুলের আরেক শিক্ষক আব্দুল মালেক ফোন করে এলাকার কয়েক ব্যক্তিকে ডেকে এনে তাদের দিয়ে বেধড়ক মারপিট করে আহত করে।'
তিনি দাবি করেন, এই শিক্ষক মালেক জঙ্গি কর্মকাণ্ডে জড়িত। তিনি শিক্ষক মালেকের শাস্তির দাবি করেন।
এদিকে, কারিমা হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক আবু তাহের বলেন, ''এসএসসি পরীক্ষার্থীদের মডেল টেস্ট চলছে। কিন্তু জোবায়ের হোসেন কোনো পরীক্ষায় অংশ নেয়নি। শিক্ষক মালেক তাকে বলে, 'পরীক্ষায় অংশ না নিলে তোমাকে বোর্ড পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করতে দেবো না।' ওই শিক্ষার্থী তখন ছাত্রলীগ নেতাদের ডেকে আনে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে শিক্ষক আব্দুল মালেক লোক ডেকে এনে জোবায়েরকে মেরেছে।'
জোবায়ের হোসেন পরীক্ষায় অংশগ্রহণ না করে থাকলে সে স্কুলে গেল কেন? স্কুলে না গেলে তাকে মারলো কীভাবে? তাকে স্কুলে ফেলে বাইরের লোক ডেকে এনে মারধর করা কী ঠিক করেছেন?- এসব প্রশ্নের জবাব দেননি প্রধান শিক্ষক।

আরও পড়ুন