সাবেক কমিশনার বিএনপি নেতা চঞ্চলের মৃত্যু

আপডেট: 01:52:01 12/07/2017



img

স্টাফ রিপোর্টার : যশোর পৌরসভার সাবেক কমিশনার (এখন বলা হয় কাউন্সিলর) খন্দকার রবিউল আলম চঞ্চল মারা গেছেন। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।
আজ বুধবার সকাল সোয়া ৮টার দিকে যশোর জেনারেল হাসপাতালের করোনারি কেয়ার ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। তার বয়স হয়েছিল ৬১ বছর। তিনি এক ছেলে, এক মেয়ে, স্ত্রীসহ বহু শুভানুধ্যায়ী রেখে গেছেন।
ছেলে শফিউল আলম উপল সুবর্ণভূমিকে জানান, তার বাবা একজন মুক্তিযোদ্ধা। শহরের ঘোপ এলাকার বাসিন্দা জনপ্রিয় ব্যক্তিত্ব রবিউল আলম চঞ্চল ১৯৯৩ সাল থেকে ১৯৯৯ সাল পর্যন্ত যশোর পৌরসভার কমিশনার ছিলেন। সুস্থ থাকাকালে চঞ্চল রাজনীতিতেও সক্রিয় ছিলেন। বিএনপি জেলা কমিটির সদস্য এবং নগর কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্বও পালন করেছেন। তিনি দির্ঘদিন অ্যাজমায় ভুগছিলেন। এরই মধ্যে মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণজনিত কারণে তার হাতপা অচল হয়ে যায়। পরে তাকে যশোর করোনারি কেয়ার ইউনিটে ভর্তি করা হয়। সেখান দুই মাস ১১ দিন চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।
হাসপাতালে চিকিৎসাকালে বিএনপি নেতারা নিয়মিত তাকে দেখতে যেতেন। শারীরিক অবস্থা ও চিকিৎসার খোঁজ-খবরও নিতেন তারা।
আজ বাদআছর ঘোপ কবরস্থানে রবিউল আলম চঞ্চলকে দাফন সম্পন্ন হবে বলে জানান উপল।
এদিকে, খন্দকার রবিউল আলম চঞ্চলের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন বিএনপি জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য তরিকুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অনিন্দ্য ইসলাম অমিত, জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শামসুল হুদা ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট সৈয়দ সাবেরুল হক সাবু, কেন্দ্রীয় সদস্য প্রকৌশলী টিএস আইয়ুব, নগর সভাপতি মারুফুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক মুনির আহম্মেদ সিদ্দিকী বাচ্চু প্রমুখ।
তারা শোকসন্তপ্ত পরিবার-সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন