স্বেচ্ছাসেবকদল নেতা ‘অবাঞ্ছিত’, কুশপুতুলে আগুন

আপডেট: 02:08:07 07/06/2018



img
img

স্টাফ রিপোর্টার : বুধবার ঘোষিত যশোর জেলা স্বেচ্ছাসেবকদলের আংশিক কমিটিকে একপেশে, অগণতান্ত্রিক এবং অর্থনৈতিক লেনদেনের ফসল দাবি করে তা প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে।
একইসঙ্গে এই কমিটির দায়িত্বে থাকা স্বেচ্ছাসেবকদলের কেন্দ্রীয় সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) মোস্তাফিজুর রহমানকে যশোরে অবাঞ্ছিত ঘোষণা, ঝাড়ুমিছিল এবং কুশপুতুল পুড়িয়েছেন পদপ্রত্যাশী বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীরা।
বৃহস্পতিবার দুপুরে প্রেসক্লাব যশোর কনফারেন্স রুমে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে পদপ্রত্যাশী বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীদের পক্ষে জেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি জহুরুল হক শিমুল বলেন, বুধবার (৬ মে) সন্ধ্যায় কেন্দ্র থেকে যশোর জেলা স্বেচ্ছাসেবকদলের আংশিক কমিটি ঘোষণা করা হয়। ওই কমিটিতে সভাপতি রবিউল ইসলাম, সিনিয়র সহ-সভাপতি নির্মলকুমার বিট, সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা আমির ফয়সাল, যুগ্ম সম্পাদক রেজাউল ইসলাম রিয়েল এবং সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে আলী হায়দার রানার নাম রয়েছে।
তিনি দাবি করেন, ‘কমিটির ঘোষণার দায়িত্বপ্রাপ্ত হিসেবে কেন্দ্রীয় সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) মোস্তাফিজুর রহমান অনৈতিক সুবিধা গ্রহণ করে সম্পূর্ণ উদ্দেশ্যমূলকভাবে অগণতান্ত্রিক পন্থায় এই কমিটি ঘোষণা করেছেন। কেননা বর্তমান অগণতান্ত্রিক জুলুমবাজ সরকারের বিরুদ্ধে আমরা যারা রাজপথের আন্দোলনে সবসময় রয়েছি, তাদেরকে অগ্রাহ্য করা হয়েছে। যারা কমিটিতে আছেন, তাদের আন্দোলন সংগ্রামের বিষয়টি যশোরবাসী জানে। সেইসব নিষ্ক্রিয়দের এই কমিটিতে অন্তর্ভুক্ত করায় তা অথর্ব হিসেবে পরিগণিত হবে।’
তিনি বলেন, বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান ঈদের পরে যে তীব্র গণআন্দোলনের ডাক দিয়েছেন, এই অথর্ব কমিটি গঠনের মাধ্যমে স্বেচ্ছাসেবকদলের কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব সেই ঘোষণার অমর্যাদা করেছেন।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত নেতারা বলেন, অবিলম্বে এই কমিটি বাতিল করা না হলে তীব্রতর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। একইসঙ্গে সংগঠনের কেন্দ্রীয় ভারপ্রাপ্ত সভাপতি যশোরে এলে তাকে প্রতিহত করার ঘোষণাও দেওয়া হয়।
সংবাদ সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদক পদপ্রত্যাশী জহুরুল হক শিমুল ছাড়াও ছাত্রদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক তৌফিকুর রহমান আকতার, নগর ছাত্রদলের সহ-সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইসলাম, স্বেচ্ছাসেবকদলের সদস্য মিজানুর রহমান, এমএম কলেজ ছাত্রদলের সাবেক নেতা তৌহিদুর রহমান টিটো, সিটি কলেজ ছাত্রদলের সাবেক নেতা মিরাজ হোসেন, সাইদুর রহমান বাবু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
সংবাদ সম্মেলন শেষে বিক্ষুব্ধ নেতা-কর্মীরা মোস্তাফিজুর রহমানের বিরুদ্ধে ঝাড়ু হাতে নানা স্লোগান দেন এবং তার কুশপুতুল পোড়ান।

আরও পড়ুন