১১শ' টাকায় ধান কেনার দাবি কৃষক সমিতির

আপডেট: 05:59:31 17/04/2019



img

স্টাফ রিপোর্টার : মধ্যস্বত্ত্বভোগী নয়, সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে ধান ক্রয়সহ ৭ দফা দাবি জানিয়েছে জাতীয় কৃষক সমিতি যশোর জেলা শাখার নেতৃবৃন্দ। 
আজ দুপুরে এইসব দাবিতে প্রধানমন্ত্রী বরাবর পাঠানো স্মারকলিপিতে কৃষক সমিতি জানিয়েছে, দেশের অর্থনীতির প্রধান বুনিয়াদ কৃষি, দেশের অর্থনীতি, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক ভিত্তি কৃষির উপর নির্ভরশীল।
অথচ কৃষি ও কৃষকরা সবথেকে নিগৃহীত, এই কৃষকরা কাজ করে খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করে।
দেশের মোট জাতীয় আয়ের শতকরা ১৯ ভাগ আসে কৃষি থেকে।  এবছর যশোরসহ সমগ্র দেশের কৃষকরা বাম্পার ফলনে ইরি-বোরো ধান উৎপাদন করেছে।
কিন্তু সেই ধান পানির দরে লোকসান দিয়ে বাজারে বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছে কৃষক। 
নেতৃবৃন্দ জানান, যশোর জেলায় সার, বীজ, কিটনাশক, সেচ, নিড়ানি, পরিবহন, কাটা-বাধা, মাড়াই বাবদ প্রতি মণ ধানের খরচ হয় ৮৫০ টাকা থেকে ৯২৪ টাকা।  আর বর্তমানে বাজারে বিক্রি হচ্ছে ৬০০ টাকায়। সেকারণে কৃষককে লাভের মুখ দেখাতে হলে ধান মণপ্রতি ১১শ' টাকায় সরকারকে সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে কিনতে হবে।  
সেকারণে অসহায় কৃষকদের সুরক্ষার জন্য জাতীয় কৃষক সমিতির পক্ষথেকে যশোর জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর কাছে ৭ দফা পেশ করা হয়।
স্মারকলিপি প্রদানকালে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় কৃষক সমিতির যশোর জেলা সভাপতি অ্যাড. আবু বকর সিদ্দিক, সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান, কেন্দ্রীয় নেতা জাকির হোসেন হবি, আব্দুল মাজেদ, শেখ গফ্ফার রহমান, আব্দুল ওয়াদুদ গাজী, সাহাবুদ্দিন, অধ্যাপক চৈতন্য পাল, নাজমুল হুদা প্রমুখ।