২২ নারী-পুরুষ-শিশুকে ফেরত দিলো ভারত

আপডেট: 08:56:26 13/09/2017



img

স্টাফ রিপোর্টার : বিভিন্ন মেয়াদে কারাভোগ শেষে শিশুসহ ২২ নারী-পুরুষকে বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে হস্তান্তর করেছে ভারতীয় ইমিগ্রেশন পুলিশ।
উভয় দেশের বিশেষ ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে বুধবার বিকেল সাড়ে পাঁচটার দিকে ভারতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ তাদেরকে বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।
ফেরত আসারা হলেন, কমলা বেগম, রাজিয়া, ফাতিমা খাতুন, রাবেয়া আক্তার, রিমা শেখ, নুরজাহান, আলিকা খাতুন, তাসলিমা খাতুন, লিপি খাতুন, সুবর্ণা আক্তার, লইলা, শান্তি, রুকসানা, আসমা শেখ, নুসরাত জাহান, ফাতিমা সিকদার, মুক্তা, শিউলী খাতুন, লাভলি, জবেদা খাতুন, মিম শেখ ও রাজু আহমেদ।
এদের বাড়ি যশোর. খুলনা, নড়াইল, বাগেরহাট, ভোলা, ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, রাজশাহী, নাটোর, কুড়িগ্রাম, কুমিল্লা ও রাঙামাটি জেলার বিভিন্ন এলাকায়।
বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশন অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ওমর শরীফ জানান, ভালো কাজের কথা বলে দালালরা তাদের সীমান্ত পথে ভারতে নিয়ে যায়। পরে অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগে ভারতের মুম্বাই শহর থেকে পুলিশ তাদের বিভিন্ন সময়ে আটক করে জেলখানায় পাঠায়। সেখান থেকে ‘তালাশ’ ও ‘রেসকিউ ফাউন্ডেশন’ নামে দুটি এনজিও এদেরকে ছাড়িয়ে নিজেদের শেল্টার হোমে রাখে। পরে দুই দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের যোগাযোগের এক পর্যায়ে ভারত সরকারের দেওয়া বিশেষ ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে তাদের ফেরত পাঠানো হয়।
ফিরে আসা ব্যক্তিদের বেনাপোল পোর্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান এই কর্মকর্তা।
বেনাপোল পোর্ট থানার এসআই হাবিবুর রহমান জানান, ফেরত আসা এসব নারী-পুরুষকে তাদের পরিবারের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে থানা থেকে ‘জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ার’ ও ‘রাইটস যশোর’ গ্রহণ করবে। প্রাথমিকভাবে শেল্টারহোমে রেখে পর্যায়ক্রমে তাদের পরিবারের কাছে পৌঁছে দেবে এনজিও দুটি।

আরও পড়ুন