কোটচাঁদপুরে ‘গোলাগুলিতে মাদক ব্যবসায়ী’ নিহত

আপডেট: 01:43:47 23/09/2018



img

কোটচাঁদপুর (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি : কোটচাঁদপুরে দুই দল মাদক ব্যবসায়ীর মধ্যে কথিত গোলাগুলিতে সেলিম রেজা (৪২) নামে একব্যক্তি নিহত হয়েছেন।
শনিবার দিনগত গভীর রাতে উপজেলার বলুহর গ্রামের ডাকাতি বটতলায় এই ঘটনা ঘটে।
কোটচাঁদপুর থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) বিপ্লবকুমার সাহা বলছেন, রাত দুইটার দিকে শহর-সংলগ্ন বলুহর গ্রামে মইদুল মিয়ার ইটভাটার অদূরে ডাকাতি বটতলা নামক স্থানে দুই দল মাদক ব্যবসায়ীর মধ্যে গোলাগুলির খবর পাওয়া যায়। তখনই সেখানে পুলিশ ফোর্স পাঠানো হয়। পুলিশ গিয়ে গোলাগুলি হচ্ছে দেখতে পায়। এসময় পুলিশ দুই রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ে। এতে সন্ত্রাসীরা ঘটনাস্থল ছেড়ে পালিয়ে যায়।
ওসি বলেন, এ সময় পুলিশ ওই স্থানে তল্লাশি করে গুলিবিদ্ধ নিহত অবস্থায় একটি লাশ পড়ে থাকতে দেখে। এছাড়া ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা অবস্থায় ৪০ বোতল ফেনসিডিল, ৩০০ পিচ ইয়াবা, দুই রাউন্ড তাজা গুলি, একটি ওয়ান শুটারগান, চারটি মোবাইল ও একটি কালো রঙের প্রাইভেট কার উদ্ধার করে। এ সময় আশপাশের লোকজন এসে সেলিম রেজার লাশ শনাক্ত করেন।
নিহত সেলিম রেজা কোটচাঁদপুর পৌর এলাকার কাশিপুর এলাকার নূর ইসলামের ছেলে। তিনি এলাকায় পুলিশের সোর্স ও দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসী হিসেবে পরিচিত। তার বিরুদ্ধে অপহরণসহ বিভিন্ন থানায় ৫-৬টি মাদকের মামলা রয়েছে।
লাশ রোববার (আজ) সকালে ময়নাতদন্তের জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।
উল্লেখ্য, ১১ সেপ্টেম্বর সেলিম রেজার নেতৃত্বে তার বাহিনী কোটচাঁদপুর মেইন বাসস্ট্যান্ড থেকে সুজন (২৫) নামে এক ব্যক্তিকে অপহরণ করে বলে অভিযোগ ওঠে। পরে অপহৃত সুজনের পরিবারের কাছ থেকে সেলিম রেজা ২০ লাখ টাকা মুক্তিপণ হিসেবে দাবি করা হয়। দুই দিন পর কোটচাঁদপুর থানা পুলিশ টাকা দেওয়ার ফাঁদ পেতে অপহৃত সুজনকে উদ্ধারসহ মামুন নামে এক অপহরণকারীকে গ্রেফতার করে।

আরও পড়ুন