বাণিজ্যবাধা দূর করতে বেনাপোলে দুই দেশের বৈঠক

আপডেট: 09:58:39 24/09/2017



img

স্টাফ রিপোর্টার : বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে ভারতের সঙ্গে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য সম্প্রসারণে দুই দেশের ব্যবসায়ী, কাস্টমস, বন্দর ও প্রশাসনের কর্মকর্তাদের মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক হয়েছে। রোববার বেনাপোল স্থলবন্দর অডিটোরিয়ামে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। পরে বন্দরের বিভিন্ন সমস্যা সরেজমিনে ঘুরে দেখেন প্রতিনিধিরা।
দুপুরে অনুষ্ঠিত বৈঠকটি দীর্ঘ তিন ঘণ্টা স্থায়ী হয়। ২৪ ঘণ্টা সুষ্ঠু ও নির্বিঘেœ বাণিজ্যিক কার্যক্রম পরিচালনার পথ সুগম করার জন্য দুই দেশের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়। দুই দেশের প্রতিনিধিরা বিভিন্ন সমস্যা চিহ্নিত করেছেন। সেগুলো দ্রুত অপসারণে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের ব্যাপারে একমত পোষণ করেন দুই পক্ষই।
গত ২ আগস্ট থেকে বেনাপোল বন্দরের সঙ্গে ভারতের পেট্রাপোল বন্দরের ২৪ ঘণ্টা (রাউন্ড দ্য ক্লক) বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু হয়। কিন্তু বন্দরের অভ্যন্তরে স্থান ও জনবল সংকটে এই কার্যক্রম খুবএকটা গতি পাচ্ছে না। খালাসের অপেক্ষায় দিনের পর দিন ভারতীয় ট্রাক আমদানিপণ্য নিয়ে বন্দরে দাঁড়িয়ে থাকায় লোকসানের কবলে পড়ছেন ব্যবসায়ীরা। এই ক্ষতি কাটিয়ে উঠে কীভাবে দ্রুত বাণিজ্যিক কার্যক্রম সম্প্রসারণ ও গতিশীল করা যায়, এটাই ছিল দুই দেশের প্রতিনিধিদের বৈঠকের মূল উদ্দেশ্য।
বেনাপোল স্থলবন্দরের উপ-পরিচালক (ট্রাফিক) আমিনুল ইসলাম আজকের বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন।
এতে বাংলাদেশের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন বেনাপোল বন্দরের উপ-পরিচালক (প্রশাসন) রেজাউল করিম, বেনাপোল সিঅ্যান্ডএফ অ্যাসোসিয়েশনের সহ-সভাপতি কামাল উদ্দিন শিমুল, পোর্ট থানার ওসি অপূর্ব হাসান প্রমুখ।
ভারতের পক্ষে ছিলেন বঁনগার এমএলএ বিশ্বজিৎ দাস, সাব-ডিভিশনাল ম্যাজিস্ট্রেট (এসডিএম) কাকলী মুখার্জী, পুলিশের এসডিপিও অনিলকুমার রায়, পেট্রাপোল সিঅ্যান্ডএফ স্টাফ ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক কার্তিক চক্রবর্তী, আমদানি-রপ্তানিকারী সমিতির সভাপতি পরিতোষ বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক দীপক ঘোষ, পেট্রাপোল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোপাল বিশ্বাস প্রমুখ।

আরও পড়ুন