মণিরামপুরে কলেজছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ

আপডেট: 03:36:57 24/10/2017



img

মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি : মণিরামপুরে সোনালি আক্তার সুমি (১৭) নামে এক কলেজছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার হয়েছে। সোমবার রাত দশটার দিকে ঘরের মধ্য থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করেন স্বজনরা।
সুমি ঘরের চালার কাঠের সঙ্গে গলায় রশি জড়িয়ে আত্মহত্যা করে।
সুমি মণিরামপুর মহিলা ডিগ্রি কলেজের একাদশ শ্রেণির মানবিক শাখার ছাত্রী ছিল। সে শহরের মোহনপুর এলাকার বিল্লাল হোসেনের মেয়ে।
সুমির বাবা বিল্লাল হোসেন দ্বিতীয় স্ত্রীকে নিয়ে পাশের দুর্গাপুর এলাকায় থাকেন। আর মা রুপালি বেগম একমাত্র মেয়েকে নিয়ে মোহনপুরে থাকতেন। অন্যের বাড়িতে কাজ করে তিনি মেয়ের লেখাপড়া ও সংসার খরচ যোগাতেন।
স্থানীয়রা জানান, অন্যের বাড়িতে কাজের সূত্রে মেয়ে সুমিকে ঘরে রেখে সোমবার সন্ধ্যায় বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান রুপালি। মেয়েকে নামাজ শেষে পড়তে বলে যান তিনি। রাত সাড়ে আটটার দিকে বাড়ি ফিরে মেয়েকে ঘরে না পেয়ে খোঁজাখুঁজি করতে থাকেন। এক পর্যায়ে রাত দশটার দিকে ঘরের ছোট কামরার দরজা ধাক্কা দিয়ে ভেতর থেকে আটকানো দেখে সন্দেহ লাগে তার। পরে জানালা দিয়ে তাকিয়ে ঘরের মধ্যে মেয়েকে ঝুলতে দেখেন। রুপালি বেগমের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এসে সুমিকে উদ্ধার করে মণিরামপুর হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত ডাক্তার সুমিকে মৃত ঘোষণা করেন।
তবে রাতে এই ধরনের কেউ হাসপাতালে আসেনি বলে জানান জরুরি বিভাগের দায়িত্বে থাকা চিকিৎসক রাজিবকুমার পাল।
কলেজছাত্রীর আত্মহত্যার ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। সকালে থানার এসআই সাখাওয়াত হোসেন ঘটনাস্থলে যান।

আরও পড়ুন