মণিরামপুরে বিদেশফেরত যুবকের ঝুলন্ত লাশ

আপডেট: 09:12:06 08/12/2017



img

মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি : মণিরামপুরে তরিকুল ইসলাম (২২) নামে সদ্য বিদেশফেরত এক যুবকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার হয়েছে।
বৃহস্পতিবার রাত আড়াইটার দিকে উপজেলার হরিহরনগর ইউনিয়নের বড়চেতলা (দশানী) এলাকায় একটি আমড়াগাছ থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় স্বজনরা তার লাশ উদ্ধার করেন। নিজের ব্যবহৃত মাফলার জড়িয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে তিনি আত্মহত্যা করেছেন বলে দাবি করা হচ্ছে। তবে কী কারণে তরিকুলের এই ‘আত্মহনন’ তা জানা যায়নি।
এই ঘটনায় নিহতের চাচা রবিউল ইসলাম বাদী হয়ে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা করেছেন। খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে।
তরিকুল ওই এলাকার শহিদুল ইসলামের ছেলে। পাঁচ বছর ধরে তিনি মালয়েশিয়ায় কর্মরত ছিলেন। এক সপ্তাহ আগে তিনি বাড়িতে ফেরেন।
মামলা ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বিদেশে থাকা অবস্থায় তরিকুল পাইল্স রোগে আক্রান্ত হয়ে পড়েন। বাড়ি থেকে কয়েকবার স্বজনরা তার জন্য বিদেশে ওষুধ পাঠিয়েছেন। তাতে সুস্থ না হওয়ায় এক সপ্তাহ আগে ফিরে আসেন তিনি। অন্যান্য দিনের মতো বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বন্ধুদের সঙ্গে বাড়ি থেকে বের হন তরিকুল। রাতে বাড়ি না ফেরায় স্বজনরা তার খোঁজ করতে থাকেন। এক পর্যায়ে রাত আড়াইটার দিকে বাড়ির অদূরে খোলা মাঠে সমছেরের পানির পাম্পের পাশে একটি আমড়াগাছে তাকে ঝুলতে দেখেন স্বজনরা। পরে তারা লাশ নামিয়ে এনে পুলিশে খবর দেন।
খবর পেয়ে শুক্রবার সকালে ঘটনাস্থলে যান ঝাঁপা পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই সঞ্জিতকুমার। তিনি লাশ উদ্ধার করে দুপুরে যশোর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছেন।
ঝাঁপা পুলিশ ক্যাম্পের আইসি এসআই সঞ্জিতকুমার বলেন, ‘স্বজনরা বলছেন, আগেও একবার তরিকুল গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে। অসুস্থতার জন্যই সে আত্মহত্যা করেছে বলে স্বজনদের দাবি।’
‘তবে বাড়ি থেকে দূরে খোলা মাঠে তার লাশ পাওয়া যাওয়ায় সন্দেহ হয়েছে। তাই লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছি,’ বলেন এসআই সঞ্জিতকুমার।

আরও পড়ুন