সাতক্ষীরায় ধর্ষণে ব্যর্থ খুনির ফাঁসির আদেশ

আপডেট: 02:14:43 24/04/2018



img

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি : সাতক্ষীরায় এক স্বামী পরিত্যক্তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে তাকে হত্যার দায়ে রফিকুল ইসলাম শিপন ওরফে আলমগীর নামে এক ব্যক্তিকে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত।
মঙ্গলবার (২৪ এপ্রিল) বেলা সোয়া ১২টায় সাতক্ষীরার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত-২ এর বিচারক অরুণাভ চক্রবর্তী এ রায় ঘোষণা করেন।
সাজাপ্রাপ্ত আসামি রফিকুল ইসলাম শিপন ওরফে আলমগীর সদর উপজেলার ধুলিহর ব্রহ্মরাজপুরের ওয়াজেদ আলী ঢালীর ছেলে।
মামলার বিবরণে জানা যায়, রফিকুল ইসলাম শিপন ওরফে আলমগীর কালিগঞ্জের মৌতলা ইউনিয়নের শেখপাড়ার হেকমত শেখের বাড়িতে পালিত ছেলে হিসেবে থাকতো। সে পাশের মুড়াগাছা এলাকায় কয়েকটি গাছ কিনে তা কাটার জন্য ওই এলাকার আকবার আলীর বাড়িতে কয়েকদিন থাকার জন্য আশ্রয় নেয়। পরে ২০০৯ সালের ১৩ জুলাই রাতে আকবার আলীর স্বামী পরিত্যক্তা মেয়ে সালমা খাতুন খুকু প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে উঠলে আলমগীর তার ঘরে ঢোকে এবং তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে সে ওই নারীকে বালিশ চাপা দিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর তার মোবাইল ফোন নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে এলাকাবাসী আলমগীরকে আটক করে ওই মোবাইল ফোন উদ্ধার করে তাকে পুলিশে দেন। এ ঘটনায় আকবার আলী বাদী হয়ে কালিগঞ্জ থানায় মামলা করেন। পরে আলমগীর আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়।
ওই মামলায় ২০ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ এবং জব্দ করা আলামত পর্যালোচনা করে আসামির বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় বিচারক তাকে ফাঁসির আদেশ দেন।
সাতক্ষীরা আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর তপনকুমার দাশ এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
রায় ঘোষণার সময় দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি হাজির ছিল না। আটক হওয়ার কিছুদিন পর জামিনে মুক্তি পেয়ে সে পালিয়ে যায়।

আরও পড়ুন