মণিরামপুরে আরেক 'রোহিঙ্গা' তরুণ

আপডেট: 03:03:30 19/09/2017



img

মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি : মণিরামপুরে রোহিঙ্গা হিসেবে শনাক্ত করে এবার ১৬ বছর বয়সী এক তরুণকে পুলিশে দিয়েছে জনতা।
সোমবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে ওই তরুণ কাঁচা বাজারের আব্দুর রাজ্জাকের চায়ের দোকানে এলে সেখানে উপস্থিত লোকজনের সন্দেহ হয়। পরে থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে ওই তরুণকে হেফাজতে নেয়।
একই দিন দুপুরে প্রায় ৩০ বছর বয়সী আরেক যুবককে মণিরামপুরে পাওয়া যায়, যাকে রোহিঙ্গা বলে মনে করছেন স্থানীয়রা।
আব্দুর রাজ্জাক বলেন, 'আজ রাতে ছেলেটি আমার দোকানে এসে চা ও রুটি চায়। তখন তার কথা শুনে মনে হয়েছে ও রোহিঙ্গা।'
খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, উৎসুক জনতা ছেলেটিকে  ঘিরে রেখেছে। তারা জানতে চাইছে তরুণের নাম-ঠিকানা। তার বাড়ি মায়ানমারের সোয়াই এলাকায় বলে জানিয়েছে তরুণ। যদিও তার কথা স্পষ্ট নয়।
ওই তরুণ জানায়, গতকাল সে এই এলাকায় এসেছে। তার বাবা-মা দেশে আছেন। সে একা এসেছে। তার গায়ের পানজাবিটা কেউ একজন দিয়েছেন বলে জানায় সে।
এদিকে, খবর পেয়ে ওই দোকানে আসেন রোহিতা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি হাফিজ উদ্দিন। তিনি বিষয়টি থানার ওসিকে জানান। এর কিছুক্ষণ পরে রাত সাড়ে দশটার দিকে সেখানে আসেন থানার এসআই নাসির। তিনি ছেলেটিকে থানায় নিয়ে যান।

আরও পড়ুন