মণিরামপুরে দুই কিশোর-কিশোরীর অপমৃত্যু

আপডেট: 09:51:09 24/09/2018



img

মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি : মণিরামপুরের রাজগঞ্জ এলাকায় বিদ্যুৎস্পর্শে ইউসুফ আলী (১৫) নামে এক কিশোরের ও গলায় ফাঁস দিয়ে স্বপ্না পাল (১৭) নামে এক কলেজছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে।
ইউসুফ আলী উপজেলার মশ্মিমনগর ইউনিয়নের হাকিমপুর গ্রামের ভ্যানচালক নিছার আলীর ছেলে। আর স্বপ্না পাল ঝাঁপা গ্রামের পালপাড়া এলাকার নারায়ণচন্দ্র পালের মেয়ে। মণিরামপুর থানার ডিউটি অফিসার এএসআই শরিফুল ইসলাম দুইজনের অপমৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই তোবারক আলী জানান, সোমবার দুপুরে নিছার আলী বাড়িতে তার ইনজিনচালিত ভ্যান চার্জে দিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। বেলা দুইটার দিকে তার ছেলে ইউসুফ ভেজা কাপড়ে এসে চার্জার খুলতে গিয়ে বিদ্যুতায়িত হয়। এসময় ইউসুফের চিৎকার শুনে বাবা নিছার আলী (৪০) ও মা মর্জিনা খাতুন (৩৫) এগিয়ে এসে ছেলেকে ছাড়াতে যান। এতে তারা বিদ্যুতায়িত হয়ে গুরুতর আহত হন। আর ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ইউসুফের।
খবর পেয়ে বিকেলে পুলিশ ওই বাড়িতে গিয়ে লাশ দাফনের অনুমতি দিয়েছে বলে জানান এসআই তোবারক।
এদিকে, নিজের অমতে ভারতে বিয়ে ঠিক করায় বাবা-মার ওপর অভিমান করে সোমবার বিকেল পাঁচটার দিকে নিজ ঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় ওড়না জড়িয়ে আত্মহত্যা করে স্বপ্না পাল। সে স্থানীয় একটি কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী ছিল। রাতে এই খবর লেখা পর্যন্ত ওই ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলার প্রক্রিয়া চলছিল।

আরও পড়ুন