কুমিল্লার টার্গেট ১৯৩

আপডেট: 01:49:03 12/12/2017



img

সুবর্ণভূমি ডেস্ক : জনসন চার্লসকে নিয়ে বেশ আশাবাদী ছিল রংপুর রাইডার্স শিবির। তবে মাঠে কিছুতেই পারফর্ম করতে পারছিলেন না এই ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যান। মাঝখানে বাদও পড়ে যান মূল একাদশ থেকে। অবশেষে স্বরূপে ফিরেছেন এই ব্যাটসম্যান। আর ফেরার জন্য বিপিএলের দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ম্যাচটাকেই বেছে নিলেন তিনি।
এবারের আসরে ফর্মে ছিলেন না ব্রেন্ডন ম্যাককালামও। রানে ফেরার জন্য এই কিউই ব্যাটসম্যানও বেছে নিলেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সকে। এই দুজনের মিলিত ঝড়ে কুমিল্লার বিপক্ষে ১৯২ রানের পাহাড় দাঁড় করিয়েছে রংপুর রাইডার্স।
জয়ের জন্য কুমিল্লাকে করতে হবে ১৯৩ রান। ঢাকার উইকেটে কুমিল্লা যদি এই লক্ষ্য টপকে জয় পায়, তাহলে সেটাকে রীতিমতো বিস্ময়করই বলতে হবে।
গতকাল ম্যাচে টসে জিতে রংপুরকে ব্যাটিংয়ে পাঠান কুমিল্লার দলপতি তামিম ইকবাল। সাত ওভার শেষে এক উইকেট হারিয়ে ৫৫ রান করে রংপুর। এর পরই শুরু হয় বৃষ্টি। জনসন চার্লস ৪৬ এবং ব্রেন্ডন ম্যাককালাম চার রান নিয়ে অপরাজিত ছিলেন। আগের ম্যাচের নায়ক ক্রিস গেইল এই ম্যাচে ফিরে যান দ্রুতই। ১০ বলে মাত্র তিন রান করেন গেইল। রংপুরের রান তখন ২৭।
এরপর কুমিল্লার বোলারদের ওপর রীতিমতো ঝড় বইয়ে দেন জনসন চার্লস। ৩৪ বলে হাফ সেঞ্চুরি করেন এই ব্যাটসম্যান। শুরুতে কিছুটা নিষ্প্রভ ছিলেন ম্যাককালাম। একটা সময় খোলস থেকে বের হয়ে আসেন এই কিউই ব্যাটসম্যান। এই দুজনের তলোয়ারসম ব্যাটে কচুকাটা হতে থাকেন আল-আমিন, সাইফুদ্দিনরা।
চার-ছয়ের পশরা সাজিয়ে ম্যাককালাম হাফ সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন ৩৩ বলে। ১৯তম ওভারের শেষ বলে হাসান আলীর বলে বোল্ড হওয়ার আগে ৪৬ বলে ৭৬ রান করেন তিনি।
এই ম্যাচে টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি করলেন জনসন চার্লস। ৬৩ বলে ১০৫ রান করেন তিনি। শেষ পর্যন্ত ২ উইকেটে ১৯২ রান করে রংপুর রাইডার্স।
সূত্র : এনটিভি