কুষ্টিয়ায় হুন্ডি ব্যবসায়ীকে গলা কেটে হত্যা

আপডেট: 02:32:41 18/08/2018



img
img

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি : কুষ্টিয়ায় এক ব্যক্তিকে গলা কেটে খুন করেছে দুর্বৃত্তরা। তিনি হুন্ডি ব্যবসায়ী ছিলেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।
এছাড়া রেললাইনের ধারে আরেক ব্যক্তির লাশ পাওয়া গেছে। তিনি ‘প্রতিবন্ধী’ ছিলেন বলে প্রাথমিক ধারণা পুলিশের।
আজ শনিবার সকালে কুষ্টিয়ার দৌলতপুর ও মিরপুর থেকে নিহতদের লাশ উদ্ধার করা হয়।
দৌলতপুর থানার উপ-পরিদর্শক শাহাদত হোসেন জানান, উপজেলার হোসেনাবাদ সর্দারপাড়া গ্রামে নিজের বাড়ির দোতলার একটি কক্ষ থেকে মনিরুল ইসলাম (৫২) নামে এক ব্যক্তির গলা কাটা লাশ উদ্ধার করা হয়। ধারণা করা হচ্ছে, রাতে দুর্বৃত্তরা তার গলা কেটে পালিয়ে গেছে। সকালে বাড়ির অন্য সদস্যরা টের পেয়ে পুলিশকে খবর দেন। তবে কারা এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে তা এখনো জানা যায়নি।
নিহত মনিরুল হোসেনাবাদ সেন্টারপাড়া এলাকার কামাল উদ্দিনের ছেলে।
অপরদিকে, পোড়াদহ জিআরপি থানার ওসি আব্দুল আজিজ জানান, স্থানীয়দের দেওয়া খবরে আজ শনিবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে মিরপুর পশুহাট রেলগেট-সংলগ্ন মিরপুর-পোড়াদহ রেললাইনের ওপর থেকে অজ্ঞাত এক প্রতিবন্ধী যুবকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে তার নাম পরিচয় এবং কীভাব মারা গেছে তা জানা যায়নি। ধারণা করা হচ্ছে, নিহত যুবক ঘুমন্ত অবস্থায় ট্রেন থেকে পড়ে মারা গেছেন। তার মাথায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তার কাছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সরাইল উপজেলার পাকশিমুল ইউনিয়নের তিন নম্বর ওয়ার্ডের একটি প্রত্যয়নপত্র পাওয়া গেছে। সেখানে নাম-পরিচয় লেখা না থাকলেও তিনি ‘মানসিক প্রতিবন্ধী’ উল্লেখ রয়েছে।
নিহতদের লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

আরও পড়ুন