বিশ্বকাপে উঠতে পেরেছে উইন্ডিজ

আপডেট: 02:22:41 22/03/2018



img

সুবর্ণভূমি ডেস্ক : প্রথম দুটি বিশ্বকাপ জয়ী দল, হ্যাটট্রিক শিরোপা জিততে না পারাটাকেও ধরা হয় ক্রিকেটের অন্যতম দুর্ঘটনা হিসেবে। সেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ বিশ্বকাপে থাকবে না—এও সম্ভব! বুধবার আরেকটুর জন্য সেটাই হতে যাচ্ছিল। এক পশলা বৃষ্টিই সেটা হতে দেয়নি। বৃষ্টি আইনে স্কটল্যান্ডকে ৫ রানে হারিয়ে বিশ্বকাপের টিকিট কাটতে পেরেছে ইন্ডিজ।
সহজ এক সমীকরণ নিয়ে মাঠে নেমেছিল দুই দল, জিতলেই বিশ্বকাপ। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে আগের ম্যাচেও সেই সুযোগ ছিল স্কটল্যান্ডের। কিন্তু সেই ম্যাচ হেরে বসায় বুধবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে আরো একবার পরীক্ষায় নামতে হয়েছিল স্কটিশদের। ম্যাচের প্রথমার্ধে ভালোই করেছিল তারা। ২ রান তুলতেই ২ উইকেট হারিয়ে ফেলেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তবে সে চাপ সামলে নিয়েছিল উইন্ডিজ। এভিন লুইস (৬৬) ও ফর্মে ফেরা মারলন স্যামুয়েলসের (৫১)—দুটি ফিফটিতে ৫ উইকেটে ১৫৮ রান তুলে ফেলেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ।
শেষ ১০ ওভারে পথ হারায় ক্যারিবীয়দের ইনিংস। ৪০ রানে শেষ ৫ উইকেট হারিয়ে ১৯৮ রানে অলআউট হয় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। স্কটিশ দুই পেসার শাফায়ান শরিফ ও ব্র্যাড হুইল—দুজনই ৩ উইকেট পেয়েছেন।
রান তাড়ার শুরুটা খুবই বাজে হয়েছে স্কটল্যান্ডের। তৃতীয় ওভারেই ব্যাটিংয়ের মূল ভরসা কোয়েতজার ফিরে গেছেন। কেমার রোচ (২০/২) ও জ্যাসন হোল্ডারের তোপে ২৫ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলে স্কটল্যান্ড। চাপে পড়ে রান তোলার গতিটা কখনোই তুলতে পারেনি দলটি। অ্যাশলি নার্সের বলে মিডল অর্ডারের দুই ব্যাটসম্যানের ফেরাটাই ম্যাচের ভাগ্য লিখে দিলো। ১০৫ রানে ৫ম উইকেট হারায় স্কটল্যান্ড।
এর মধ্যেই আকাশ অন্ধকার হয়ে আসছিল। সাতে নেমে মাইকেল লিস্ক তাই দ্রুত রান তোলার চেষ্টা করেছিলেন। ৩৬তম ওভারের দ্বিতীয় বলে বৃষ্টি নামায় খেলা বন্ধ করা হয়। তখন বৃষ্টি আইন অনুযায়ী স্কটল্যান্ডের রান ১৩০ হলেই বিজয়ী ঘোষণা করা হতো দলটিকে। কিন্তু স্কটল্যান্ডের স্কোর তখন ছিল ১২৫। ১০ বলে ১৪ রান করেছিলেন লিস্ক। কিন্তু অন্য প্রান্তে মুনসে (৫২ বলে ৩২) সে তালে রান তুলতে পারেননি। ফলে ৫ ম্যাচে ৫ পয়েন্ট নিয়ে বিশ্বকাপের দৌড় থেকে বাদ পড়ে গেল স্কটল্যান্ড।
আজই বিশ্বকাপের দশম দল হিসেবে জায়গা নিশ্চিত করে ফেলতে পারে জিম্বাবুয়ে। সুপার সিক্সে সবার নিচে থাকা সংযুক্ত আরব আমিরাতকে হারালেই চলবে তাদের। তবে আমিরাত যদি শেষ বেলায় এসে কোনো অঘটন ঘটাতে পারে, সে ক্ষেত্রে কালকের দিনটা হয়ে উঠবে মহাগুরুত্বপূর্ণ। সেদিন বাছাইপর্বে মুখোমুখি হবে ৪ পয়েন্ট পাওয়া দুই দল—আয়ারল্যান্ড ও আফগানিস্তান।
সূত্র : প্রথম আলো