কুষ্টিয়ায় সাব রেজিস্ট্রার খুনে চারজন গ্রেফতার

আপডেট: 05:35:53 14/10/2018



img

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি : কুষ্টিয়া শহরে ভাড়া বাসার ফ্লাটে ঢুকে সদর উপজেলা সাব-রেজিস্ট্রার নুর মোহাম্মদ শাহকে (৫৫) ছুরি মেরে ও শ্বাসরোধ করে হত্যার আলোচিত ঘটনায় পুলিশ চারজনকে গ্রেফতার করেছে।
আজ রোববার বেলা ১২টায় পুলিশ লাইনে প্রেস বিফ্রিংয়ে কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার এস এম তানভীর আরাফাত জানান, গোপন তথ্য সংগ্রহ, প্রযুক্তি ও সিসিটিভির ফুটেজের ভিত্তিতে সাব রেজিস্ট্রার কিলিং মিশনে জড়িত একজনকে শনিবার ও বাকি তিনজনকে গেল রাতে গ্রেফতার করা হয়। এরা হলেন, নিহত সাব রেজিস্ট্রার নুর মোহাম্মদের খাবার দেওয়ার দায়িত্বে থাকা জেলা রেজিস্ট্রার অফিসের পিয়ন ফারুক, মিরপুর উপজেলা সাব রেজিস্ট্রার অফিসের পিয়ন কামাল এবং নকলনবিশ সাইদুল ও বাবুল। এরা সবাই যুবক। ইতিমধ্যে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ছুরি এবং অন্যান্য আলামত উদ্ধার হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতার যুবকরা হত্যায় জড়িত বলে স্বীকার করেছেন। সাব-রেজিস্ট্রার এর কাছে অনেক টাকা থাকে, সেই টাকা নেওয়া ও ভয়ভীতি দেখিয়ে তাকে এলাকাছাড়া করার লক্ষ্য নিয়ে নুর মোহাম্মদের উওপর হামলা করেন হত্যাকারীরা।
গত ৮ অক্টোবর সোমবার রাত ১১টার দিকে কুষ্টিয়া শহরের বাবর আলী গেট-সংলগ্ন জনৈক হানিফ আলীর বহুতল ভবনের তিন তলার ফ্লাটে ঢুকে হাত-পা বেঁধে ছুরি চালিয়ে সদর সাব রেজিস্ট্রার নুর মোহাম্মদ শাহকে হত্যা করা হয়। চাকরির সুবাদে ওই ফ্লাট ভাড়া নিয়ে নুর মোহাম্মদ একাই বসবাস করতেন। তার স্ত্রী ও দুই সন্তান ঢাকার শ্যামলীতে থাকেন।
হত্যার পরদিন নিহতের ভাই কামরুজ্জামান শাহ বাদী হয়ে কুষ্টিয়া সদর থানায় হত্যা মামলা করেন।

আরও পড়ুন