বাল্যবিয়ে : কাজীর জেল, সাতজনের অর্থদণ্ড

আপডেট: 08:46:00 16/11/2018



img

স্টাফ রিপোর্টার : বাল্যবিয়ের ঘটনায় যশোরে এক কাজীকে ছয়মাসের জেল এবং ছেলে ও মেয়ের বাবাসহ সাতজনকে অর্থদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।
শুক্রবার সন্ধ্যায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হাফিজুল হক তাদের অর্থদণ্ড দেন। আদালতের পেশকার শেখ জালাল উদ্দিন এ তথ্য দিয়েছেন।
আদালত সূত্রে জানা যায়, ১৪ নভেম্বর গভীররাতে যশোর শহরের নীলগঞ্জ সাহাপাড়া এলাকার সেলিম সরদারের ছেলে সাব্বির হোসেনের (২৩) সঙ্গে গোপালগঞ্জ জেলা সদরের মানিহার এলাকার মিন্টু গাজীর মেয়ে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী শিমলা আক্তার মিমের বিয়ে হয়। আজ বৌভাত অনুষ্ঠান হচ্ছিল। ভ্রাম্যমাণ আদালত বিষয়টি জানতে পেরে বিকেলে সেলিম সরদারের বাড়িতে অভিযান চালান। এরপর যৌতুক নিরোধ আইনে বিয়ের কাজী সীতারামপুর জামে মসজিদের ইমাম মো. কামাল হোসেনকে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন। একইসঙ্গে ছেলের বাবাকে দশ হাজার, ছেলেকে পাঁচ হাজার, মেয়ের বাবাকে পাঁচ হাজার, ছেলের বড়বোনকে এক হাজার, বিয়ের সাক্ষী রাজু নামে একজনকে ৫০০ টাকা, মেয়ের মাকে ২০০ টাকা এবং উকিলকে ২০০ টাকা জরিমানা করেন।
আদালত চলাকালে যশোরের এনডিসি প্রীতম সাহা, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাওসার হামিদ, পুলিশের এসআই তারেক নাহিয়ান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
কনের বাবার বাড়ি গোপালগঞ্জে হলেও সে যশোরে তার ফুপু জাহানারা বেগমের বাড়িতে থেকে পড়াশুনা করতো।

আরও পড়ুন