ঝিনাইদহে খুনির ফাঁসির আদেশ

আপডেট: 05:16:29 25/09/2017



img

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি : ঝিনাইদহ শহরে আবুল কাসেম মো. ফজলুল হক রিপন হত্যা মামলায় মতিয়ার রহমান (৪৭) নামে এক আসামির মৃত্যুদণ্ড ও দশ হাজার টাকা জরিমানার রায় দিয়েছেন আদালত।
দণ্ডপ্রাপ্ত মতিয়ার রহমান সদর উপজেলার ভড়ুয়াপাড়া গ্রামের মৃত এজাহার জোয়ার্দারের ছেলে।
সোমবার দুপুরে ঝিনাইদহের অতিরিক্ত দয়রা জজ দ্বিতীয় আদালতের বিচারক সৈয়দ হাবিবুল ইসলাম এই রায় ঘোষণা করেন।
রায়ে দোষ প্রমাণিত না হওয়ায় আসামি আহাদ আলী ও আবু আব্দুল্লাহ মারুফ নামে দুইজনকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন বিচারক।
মামলা ও আদালত সূত্রে জানা গেছে, ২০১০ সালের ২৫ জানুয়ারি রাত ৮টার দিকে ঝিনাইদহ শহরের শেরেবাংলা সড়কের সাত ভাই কুদ্দুস মার্কেটের সামনে ছোট কামারকুন্ডু গ্রামের আবু বক্কার মাস্টারের ছেলে আবুল কাসেম মো. ফজলুল হক রিপনকে সন্ত্রাসীরা গুলি করে হত্যা করে। গুলি করে পালানোর সময় আসামি মতিয়ার রহমানকে অস্ত্রসহ ধরে ফেলেন ট্রাফিক ইনসপেক্টর গোলাম আজম।
এ ঘটনায় নিহতর স্ত্রী ফাহমিদা খাতুন এ্যানি বাদী হয়ে ঝিনাইদহ সদর থানায় তিনজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ৪-৫ জনকে আসামি করে মামলা করেন।
দীর্ঘ সাত বছর পর আদালত ১৫ জন সাক্ষির সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে সোমবার দুপুরে আসামি মতিয়ার রহমানকে দোষী সাব্যস্ত করে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দেন।
পারিবারিক কলহের জের ধরে আবুল কাসেম মো. ফজলুল হক রিপনকে ভাড়াটিয়া কিলার দিয়ে হত্যা করা হয় বলে বাদী এ্যানি অভিযোগ করেন।
সরকার পক্ষে পিপি অ্যাডভোকেট ইসমাইল হোসেন ও আসামি পক্ষে অ্যাডভোকেট তুষারকান্তি ও আনোয়ার হোসেন মামলাটি পরিচালনা করেন।

আরও পড়ুন