ইসরায়েলি সেনার গুলিতে চার ফিলিস্তিনি নিহত

আপডেট: 01:28:23 16/12/2017



img
img

সুবর্ণভূমি ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতির প্রতিবাদে গাজা ও পশ্চিম তীরে নতুন করে সংঘর্ষে ইসরায়েলি সেনাদের গুলিতে চার ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরো দেড় শতাধিক।
এই চারজনকে নিয়ে সাম্প্রতিক বিক্ষোভ-সহিংসতায় নিহত ফিলিস্তিনির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে সাতে। আহত হয়েছেন দুই হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি।
শুক্রবার জুমার নামাজের পর গাজায় বিক্ষোভকালে গুলিতে দুই ফিলিস্তিনি নিহত এবং ১৫০ জন আহত হন। অন্যদিকে অধিকৃত পশ্চিম তীরে সংঘর্ষে দুই ফিলিস্তিনি বিক্ষোভকারী নিহত এবং দশজন আহত হন বলে চিকিৎসাকর্মীরা জানিয়েছেন।
পশ্চিম তীরে নিহত দুই ফিলিস্তিনির একজন ছুরি হামলা চালিয়ে এক ইসরায়েলি পুলিশকে জখম করেছিল। এরপরই তাকে গুলি করে হত্যা করা হয় বলে ইসরায়েলি পুলিশের ভাষ্য।
গাজায় ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলনের দল হামাস গত সপ্তাহে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে ইন্তিফাদার ডাক দেয়। এ ডাকে সাড়া দিয়েই রাস্তায় রাস্তায় চলছে ফিলিস্তিনিদের বিক্ষোভ।
পশ্চিম তীরে শুক্রবার বিক্ষোভ করেছে বিপুল সংখ্যক মানুষ। বিক্ষুব্ধ ফিলিস্তিনিরা ইসরায়েলি সেনা ও সীমান্ত পুলিশদের ওপর আগুনবোমা ও পাথর ছুড়ে মারে এবং টায়ারে আগুন দিয়ে বিক্ষোভ দেখায়। তাদের ছত্রভঙ্গ করতে সেনারা পাল্টা ব্যবস্থা নেয় বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে ইসরায়েলি সেনাবাহিনী।
একই পরিস্থিতি দেখা গেছে গাজা সীমান্ত এলাকাতেও। সেখানে প্রায় সাড়ে তিনশ’ ফিলিস্তিনি বিক্ষোভ করেছে।
শুক্রবারের জুমার পর পশ্চিম তীরের উত্তরাঞ্চলে রামাল্লাহ ও জেরুজালেমের মধ্যে অবস্থিত ইসরায়েলের কালান্দিয়া সামরিক তল্লাশি কেন্দ্র এলাকায় বিক্ষোভ-সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ে। বিক্ষোভ ছত্রভঙ্গ করতে সেনারা টিয়ারগ্যাস ও গুলি ছোড়ে।
রামাল্লাহ, হেবরন, কালকিলিয়া, বেথলেহেমসহ আরো কয়েকটি স্থানেও একই রকম সংঘর্ষের খবর পাওয়া গেছে।
গত ৬ ডিসেম্বরে ট্রাম্পের জেরুজালেম ঘোষণাকে কেন্দ্র করে গাজা ও পশ্চিম তীরে ইসরায়েল-ফিলিস্তিনের মধ্যে উত্তেজনা বেড়েই চলেছে।
সূত্র : বিডিনিউজ

আরও পড়ুন