বেনাপোলে ১২টি সোনার বার পাড়লেন যাত্রী

আপডেট: 05:29:14 03/10/2018



img
img

স্টাফ রিপোর্টার : ভারতে পাচারকালে বেনাপোল চেকপোস্ট এলাকা থেকে বুধবার সকালে ১২টি সোনার বারসহ শহিদুল্লাহ (৩৩) নামে এক পাচারকারীকে আটক করেছেন বেনাপোল শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত সার্কেলের কর্মকর্তারা।
আটক শহিদুল্লাহ কিশোরগঞ্জ জেলার করিমগঞ্জ উপজেলার খুদির জঙ্গল এলাকার আফতাব উদ্দিনের ছেলে। তার পাসপোর্ট নম্বর বিপি-০০৭৫৬৩৩।
বেনাপোল শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত সার্কেলের সহকারী পরিচালক নিপুণ চাকমা জানান, গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানা যায়, শরীরের মধ্যে সোনার চালান নিয়ে এক বাংলাদেশি যাত্রী বেনাপোল চেকপোস্ট দিয়ে ভারতে যাচ্ছেন। এধরনের সংবাদের ভিত্তিতে শুল্ক গোয়েন্দা সার্কেলের সদস্যরা আগে থেকে নজরদারি বাড়ায় চেকপোস্ট এলাকায়। ওই যাত্রী কাস্টমস ও ইমিগ্রেশনের কার্যক্রম শেষ করে ভারতে ঢোকার সময় তাকে আটক করা হয়। পরে তার স্বীকারোক্তিতে জুস ও পানি খাইয়ে ওয়াশরুমে নিয়ে পায়ুপথ দিয়ে ১২টি (এক কেজি ২০০ গ্রাম) সোনার বার বের করা হয়। যার বাজারমূল্য ৬০ লাখ টাকা।
নিপুণ চাকমা জানান, পেটে আর কোনো সোনা আছে কিনা পরীক্ষা করতে তাকে নিয়ে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে এক্স-রে করা হয়। আর কোনো সোনার অস্তিত্ব না থাকায় আটক শহিদুল্লাহকে সোনা পাচারের মামলা দিয়ে বেনাপোল পোর্ট থানায় সোপর্দ করা হয়েছে বলে জানান তিনি।
এর আগে রোববার ৩০ সেপ্টেম্বর মেহেদী হোসেন (১৯) নামে এক যাত্রীর পায়ুপথ দিয়ে বের করা হয় তিনটি সোনার বার।