বুলবুলের সভায় বোমা, বিএনপি সেক্রেটারি গ্রেফতার

আপডেট: 12:54:56 22/07/2018



img
img

সুবর্ণভূমি ডেস্ক : রাজশাহী সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলের পথসভার কাছে হাতবোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মন্টুকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
রাজশাহী মহানগর পুলিশের (আরএমপি) মুখপাত্র সিনিয়র সহকারী কমিশনার (সদর) ইফতেখায়ের আলম জানান, শনিবার গভীর রাতে রাজশাহী শহরের রামচন্দ্রপুরের বাড়ি থেকে মন্টুকে পুলিশ গ্রেফতার করে।
তিনি বলেন, “বিএনপি প্রার্থীর কর্মসূচিতে ককটেল হামলার ঘটনায় পুলিশ যে মামলা করেছিল, সেই মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।”
রাজশাহী মহানগর বিএনপির সভাপতি মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলের নির্বাচনী প্রচারের অংশ হিসেবে জেলা ছাত্রদল গত ১৭ জুলাই নগরীর সাগরপাড়া মোড়ে ওই পথসভার আয়োজন করে। কর্মসূচির মধ্যেই মোটরসাইকেলে করে আসা কয়েকজন যুবক পথসভার পাশে পরপর তিনটি হাতবোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়ে পালিয়ে যায়।
ফলে পথসভা পণ্ড হয়ে যায়, বিস্ফোরণে আহত হন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা হাবিবুর রহমান হাবিবসহ অন্তত তিনজন।
বিএনপি ওই ঘটনার জন্য ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের কর্মীদের দায়ী করলে এর জবাবে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছিলেন, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমানের নির্দেশে দলীয় কর্মীরাই ওই ঘটনা ঘটিয়েছে।
ওই ঘটনার পরদিন বোয়ালিয়া থানার এসআই শামীম হোসেন অজ্ঞাত আটজনের নামে বিস্ফোরকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করেন।
এদিকে ওই বোমা হামলার ঘটনা নিয়ে বিএনপির সহ-দপ্তর সম্পাদক তাইফুল ইসলাম টিপুর সঙ্গে মতিউর রহমান মন্টুর কথিত ফোনালাপের একটি অডিও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে আসে শনিবার রাতে।
ওই অডিওর ভিত্তিতে কয়েকটি অনলাইন পোর্টালে প্রতিবেদনও ছাপা হয়। সেখানে বলা হয় ‘ভাইয়ার কাছে’ ক্রেডিট নেওয়ার জন্য ‘বিএনপির দুই কর্মীকে দিয়ে’ ওই ঘটনা ঘটানো হয়েছে।
সূত্র : বিডিনিউজ

আরও পড়ুন