ঝিনাইদহে দুই খুনির যাবজ্জীবন

আপডেট: 03:37:21 12/08/2018



img

কালীগঞ্জ (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি : ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার সার ব্যবসায়ী হাজী আব্দুল লতিফ হত্যা মামলায় দুইজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও একজনকে পাঁচ বছরের জেল দিয়েছেন আদালত।
রোববার দুপুরে এ রায় ঘোষণা করেন অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক গোলাম আযম।
যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশপ্রাপ্তরা হলেন মোস্তাফিজুর রহমান ব্যানেট ও শামু আহমেদ।
আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০১০ সালের ৪ এপ্রিল জেলার শৈলকুপা উপজেলার আহসাননগর গ্রামের সার ব্যবসায়ী হাজী আব্দুল লতিফ হাটফাজিলপুর বাজারে ব্যাবসয়ীর পাওনা টাকা আনতে গিয়ে নিখোঁজ হন। তিন দিন পর ওই বাজারে একটি গুদামের ফ্লোর খুঁড়ে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এঘটনায় নিহতের ছেলে মামুনুর রশিদ শৈলকুপা থানায় ৭ এপ্রিল চারজনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেন।
সাক্ষ্য-প্রমাণ শেষে আদালত শৈলকুপা উপজেলার বগুড়া গ্রামের মাহবুবুর রহমানের ছেলে মোস্তাফিজুর রহমান ব্যানেট ও কামান্না গ্রামের মৃত হিরু ডাক্তারের ছেলে শামু আহমেদকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো দুই বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেন। এছাড়া বগুড়া গ্রামের আব্দুর রউফ মিয়ার ছেলে রাফু আহমেদকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়। রাফু আহমেদ পলাতক রয়েছেন।
এই মামলার আরেক আসামি শুকনাল ইতিপূর্বে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন।

আরও পড়ুন