চৌগাছার সেতুর কৃতিত্ব

আপডেট: 06:38:53 25/10/2017



img

চৌগাছা (যশোর) প্রতিনিধি : চলতি বছরের মে মাসে অনুষ্ঠিত প্রথম বৃত্তিমূলক এমবিবিএস পরীক্ষায় নূর-এ জান্নাত সেতু বিশেষ কৃতিত্ব অর্জন করেছেন। তিনি চৌগাছা উপজেলার ঝিনাইকুন্ড গ্রামের জাকির হোসেনের মেয়ে। তিন ভাই বোনের মধ্যে সেতু বড়।
এবারের এমবিবিএস বৃত্তিমূলক পরীক্ষায় অনার্স মার্কস পেয়েছেন মোট নয়জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে চৌগাছার নূর-এ জান্নাত সেতু একজন। তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের আওতাধীন খুলনা আদ্-দ্বীন আকিজ মেডিকেল কলেজের অ্যানাটমি বিভাগ থেকে পরীক্ষায় অংশ নিয়ে এ কৃতিত্ব অর্জন করেন।
একজন শিক্ষার্থী সব বিষয়ে অন্যূন ৮৫% নম্বর পেলে তাকে অনার্স মার্কস বলা হয়।
সেতু এসএসসি ও এইচএসসিতেও ভালো ফলাফল অর্জন করেছিল।
সেতুর বাবা মাদরাসাশিক্ষক জাকির হোসেন বলেন, ‘আমার মেয়ের স্বপ্ন ছিল মানুষের সেবা করা। সেই লক্ষ্যে ছোট থেকেই লেখাপড়ার প্রতি ছিল তার অদম্য আগ্রহ। আল্লাহ তার ইচ্ছা পূরণ করতে চলেছেন।’
আদ্-দ্বীন আকিজ মেডিকেল কলেজের উপাধ্যক্ষ ডা. আশফাকুর রহমান বলেন, ‘সেতু আমাদের কলেজের গর্ব। সে দরিদ্র ঘরের সন্তান হলেও মেধাবী ছাত্রী। তার ভালো ফলাফলের জন্য আদ্-দ্বীন আকিজ মেডিকেল কলেজ প্রথম বছরের প্রথম পরীক্ষায় সাফল্য অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।’
সেতুর ইচ্ছা গাইনোকোলজি বিশেষজ্ঞ হওয়া।
তার ভাষ্য, ‘চাকরি বড় কথা নয়, মানুষের সেবাই মুখ্য। আমি তা করতে চাই।’
সেতু ২০১৩ সালে যশোর সকিনা স্কুল ফর গার্লস থেকে এসএসসি এবং ২০১৫ সালে হামিদপুর আল হেরা কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন। এরপরে তিনি খুলনা আদ্-দ্বীন আকিজ মেডিকেল কলেজে দরিদ্র এবং মেধাবী কোটায় ভর্তির সুযোগ পান।
তার এ সাফল্যের পেছনে অ্যানাটমি বিভাগের প্রধান এবং কলেজের উপাধ্যক্ষ প্রফেসর আশফাকুর রহমানসহ অন্যান্য শিক্ষকদের প্রচেষ্টা রয়েছে বলে তিনি মনে করেন।

আরও পড়ুন