পরিবহন ধর্মঘটে দুর্ভোগ

আপডেট: 05:56:58 28/10/2018



img
img

সুবর্ণভূমি ডেস্ক : পরিবহন ধর্মঘটে দেশের বিভিন্ন এলাকায় গন্তব্যমুখী মানুষকে দুর্ভোগে পড়তে হচ্ছে। কোথাও কোথাও অ্যাম্বুলেন্স ও ওষুধের গাড়িও ঠেকিয়ে দিতে দেখা গেছে।
গাড়ি দিয়ে সড়কে প্রতিবন্ধকতা তৈরির পাশাপাশি শ্রমিকরা অবস্থান নিয়ে সব ধরনের ইনজিনচালিত যান ঠেকিয়ে দিচ্ছেন।
সড়ক পরিবহন আইনের কয়েকটি ধারা সংশোধনসহ আট দফা দাবিতে রোববার সকাল থেকে ৪৮ ঘণ্টার ধর্মঘট বাস্তবায়ন করছেন পরিবহন শ্রমিকরা।

যশোর
সড়ক পরিবহন আইনের কয়েকটি ধারা পরিবর্তনের দাবিতে সারাদেশের সঙ্গে একযোগে যশোরাঞ্চলেও চলছে পরিবহন শ্রমিকদের ৪৮ ঘণ্টার কর্মবিরতি। ভোর ছয়টা থেকে শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে অবস্থান নিয়ে শ্রমিকরা সব ধরনের যানবাহন চলাচলে বাধা দিচ্ছেন। এজন্য কর্মবিরতির শুরুতেই চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন বিভিন্ন গন্তব্যের উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হওয়া সাধারণ যাত্রীরা। বিশেষ করে ভারত থেকে আসা বহু যাত্রী বেনাপোলে আটকা পড়েছেন।

ঝিনাইদহ
ঝিনাইদহে জনজীবন অচল হয়ে পড়েছে। জেলা থেকে ঢাকাগামী পরিবহনসহ দূরপাল্লা ও স্থানীয় সব রুটের যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।
যান চলাচল না করায় চরম ভোগান্তিতে পড়েছে সাধারণ মানুষ। সঠিক সময়ে গন্তব্যে পৌঁছাতে না পারায় নানা রকম বিড়ম্বনায় পড়তে হচ্ছে বলে যাত্রীরা জানিয়েছেন।
শহরে ইনজিনচালিত সব যানবাহনের পাশাপাশি ব্যাটারিচালিত রিকশাও চালাতে দিচ্ছেন না শ্রমিকরা।

কুষ্টিয়া
কুষ্টিয়া থেকে সব রুটে যাত্রীবাহী বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে। আজ রোববার সকাল থেকে কুষ্টিয়ার মজমপুর গেট থেকে কোনো বাস ছেড়ে যায়নি।
কুষ্টিয়া জেলা বাস মিনিবাস ও মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আফজাল হোসেন জানিয়েছেন, আট দফা দাবিতে সড়ক পরিবহন ফেডারেশন ৪৮ ঘণ্টা ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে। এর প্রেক্ষিতে কুষ্টিয়া জেলার সকল রুটে বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে।
ঢাকাগামীসহ সব রুটে গাড়ি চলাচল বন্ধ থাকায় যাত্রীরা চরম ভোগান্তির মধ্যে পড়েছে।

আরও পড়ুন