সুরকার সঙ্গীত পরিচালক রুপুর মৃত্যু

আপডেট: 05:54:57 22/02/2018



img

সুবর্ণভূমি ডেস্ক : চলে গেলেন দেশবরেণ্য সুরকার ও সংগীত পরিচালক আলী আকবর রুপু। আজ দুপুর পৌনে ১টার দিকে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। কয়েক দিন ধরেই তিনি হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে ভর্তি ছিলেন।
আলী আকবর রুপুর মেয়ে ফারিয়া নাজ খবরটি নিশ্চিত করে বলেন, ‘আজ দুপুর ১২টা ৪০ মিনিটে তিনি শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন। বাদ আসর গুলশান আজাদ মসজিদে তার জানাজা অনুষ্ঠিত হবে। তারপর মগবাজারের বাসায় লাশ নিয়ে যাওয়া হবে। দাফন করা হবে আজিমপুর কবরস্থানে।’
ফারিয়া নাজ আরো বলেন, ‘বাবা অনেক দিন ধরেই হৃদরোগ ও কিডনি রোগে ভুগছিলেন। গত শুক্রবার বাবাকে কিডনি ডায়ালাইসিস করানোর জন্য হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে এখানেই তার স্ট্রোক হয়। তাৎক্ষণিক আইসিইউতে ভর্তি করানো হয়।’
আশির দশকের গোড়ায় গিটারিস্ট ও কিবোর্ড বাদক হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করেন রুপু। জাফর ইকবাল ও অঞ্জনার দ্বৈত ‘একটি দুর্ঘটনা’ ছিল তার করা প্রথম অ্যালবাম। প্রথম অ্যালবামেই পরিচিতি পেয়ে যান তিনি। এরপর তিনি একে একে কাজ করেছেন জনপ্রিয় শিল্পীদের সঙ্গে। তার উল্লেখযোগ্য গানের মধ্যে রয়েছে কুমার বিশ্বজিতের ‘একদিন কান্নার রোল পড়বে আমার বাড়িতে’, ‘যারে ঘর দিলা সংসার দিলা’, ‘মুর্দায় কাইন্দা কয়’, তপন চৌধুরীর ‘যতক্ষণ শ্বাস, ততক্ষণই আশ’ প্রভৃতি।
এ ছাড়া গান বানিয়েছেন রুনা লায়লা, সাবিনা ইয়াসমিন, দিলরুবা খান, শুভ্র দেবসহ আরো অনেকের জন্য। চলচ্চিত্রেও কাজ করেছেন তিনি। হানিফ সংকেতের ‘ইত্যাদি’র সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। এ ছাড়া ১১ বছর তিনি সংগীত পরিচালক হিসেবে কাজ করেছেন একটি বেসরকারি টেলিভিশনে।
সূত্র : এনটিভি