বৃত্তি পেল যশোরের সাংবাদিকদের সন্তানরা

আপডেট: 07:01:31 19/01/2018



img
img
img

স্টাফ রিপোর্টার : জাহেদী ফাউন্ডেশন-প্রেসক্লাব যশোর বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠান হলো আজ বিকেলে।
প্রেসক্লাব যশোর মিলনায়তনে আয়োজিত এই সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতাকালে জাহেদী ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা মো. নাসের শাহরিয়ার জাহেদী বলেন, ‘প্রচলিত শিক্ষায় শিক্ষার্থীদের মধ্যে মূল্যবোধ জাগ্রত হচ্ছে না। অথচ একটি শিশু যদি মূল্যবোধ ধারণ না করে, তাহলে সে ইঞ্জিনিয়ার-পাইলট হলেও লাভ নেই।’
রেডিয়েন্ট ফার্মাসিউটিক্যালসের চেয়ারম্যান জাহেদী শিশু শিক্ষার্থীদের ওপর লেখাপড়ার অত্যধিক চাপ দেওয়ার যে সংস্কৃতি গড়ে উঠেছে, তার বিরোধিতা করেন। বলেন, ‘ক্লাস সেভেন-এইট পর্যন্ত বাচ্চার রোল নম্বর কত হলো, কোন বিষয়ে কত নম্বর পেল- এসব নিয়ে মাথাব্যথার কোনো দরকারই নেই। এই লেভেল পর্যন্ত শিশুদের খেলাধুলা, সুকুমারবৃত্তি চর্চার ওপর জোর দেওয়া উচিৎ। সে যে বিষয়ে আগ্রহী, তাকে সেই বিষয়ে অনুপ্রাণিত করা উচিৎ। পাঠ্যবইয়ের বাইরে নানা ধরনের বই পড়তে দিতে হবে শিশুদের। এতে তার জ্ঞান বিকশিত হবে। এরপর নবম শ্রেণি থেকে তার পরীক্ষার ফলাফলের দিকে মনোযোগী হতে হবে।’
অনুষ্ঠানে প্রেসক্লাব সদস্য ও স্টাফদের ৫৫ সন্তানকে বৃত্তি দেওয়া হয়। একইসঙ্গে তাদের হাতে তুলে দেওয়া হয় স্মারক উপহার।
বক্তৃতায় প্রেসক্লাব যশোরের জীবন সদস্য শাহরিয়ার জাহেদী সাংবাদিকদের ‘সমাজের অভিভাবক হিসেবে’ উল্লেখ করেন। বলেন, ‘সাংবাদিক ও শিক্ষকরা যদি সঠিক পথে থাকেন, তাহলে দেশ অবশ্যই অগ্রসর হবে।’
তিনি সাংবাদিকদের পেশাগত মান উন্নয়ন ও তাদের সন্তানদের সুশিক্ষিত করতে জাহেদী ফাউন্ডেশন আরো ভূমিকা রাখতে চায় বলে উল্লেখ করেন।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন প্রেসক্লাব সভাপতি জাহিদ হাসান টুকুন। সম্পাদক এসএম তৌহিদুর রহমানের সঞ্চালনায় এতে আরো বক্তৃতা করেন ক্লাবের সাবেক সভাপতি একরাম-উদ-দ্দৌলা, ফকির শওকত, সাম্প্রতিক দেশকালের সম্পাদক ইলিয়াসউদ্দিন পলাশ, পৌরসভার কাউন্সিলর মকসিমুল বারী অপু প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে প্রেসক্লাব যশোরের সদস্য ছাড়াও সংবাদকর্মী ও তাদের স্ত্রী-সন্তানরা হাজির ছিলেন।

আরও পড়ুন