যশোরে ব্যবসায়ীকে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টায় ‘প্রেমিকা’

আপডেট: 07:57:50 23/04/2018



img
img

স্টাফ রিপোর্টার : যশোরে বিপ্লব হোসেন রনি (৩৮) নামে এক ব্যবসায়ীর শরীরে পেট্রোল ঢেলে আগুন দিয়ে হত্যাচেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। আর এই ঘটনায় যাকে অভিযুক্ত করা হচ্ছে, তিনি একজন নারী।
ওই নারীর নাম আফসানা আক্তার মিম ওরফে পারভিনা। আক্রান্ত রনির পরিবার তাকে ‘কলগার্ল’ বলছে।
আজ সোমবার দুপুরে সদর উপজেলার চুড়ামনকাটি ইউনিয়নের দৌলতদিহি গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। আহত রনির অবস্থা খুবই আশঙ্কাজনক। যশোর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা দিয়ে তাকে এখন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।
বিপ্লব হোসেন রনি শহরের পুরাতন কসবা লিচুবাগান এলাকার এসএম শফির ছেলে।
বাবা যাত্রাশিল্পী এসএম শফি সুবর্ণভূমিকে বলেন, ‘আমার ছেলে বিপ্লব হোসেন রনি একজন ব্যবসায়ী। যশোর কালেক্টরেট মার্কেটে তার কাপড়ের দোকান আছে। আমার ছেলের স্ত্রী-সন্তানও আছে। দৌলতদিয়া গ্রামের মিন্টুর মেয়ে আফসানা আক্তার মিম ওরফে পারভিনা একজন কলগার্ল। পারভিনা আমার ছেলেকে তার প্রেমে ফাঁসিয়ে দশ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।’
‘আজ দুপুরে পারভিনা কৌশলে রনিকে তার বাবার বাড়ি দৌলতদিয়া গ্রামে ডেকে নিয়ে যায়। পারভিনার বাড়ির উঠোনে বসে ছিল রনি। এসময় স্থানীয় কয়েক দুর্বৃত্তের সহযোগিতায় পেছন থেকে আঘাত করে পারভিনা। রনি মাটিতে পড়ে গেলে তার শরীরে পেট্রোল ঢেলে দিয়াশলাইয়ের কাঠি দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয় পারভিনা। রনির চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে আনে।’
ঘটনার সময় রনির কাছে থাকা নগদ ৩০ হাজার টাকা ও একটি ক্রেডিট কার্ড হাতিয়ে নেওয়া হয় বলেও তার বাবার দাবি।
হাসপাতালের সার্জারি ওয়ার্ডের সিনিয়র নার্স লক্ষ্মীরানি ইন্টার্ন ডাক্তার রনির উদ্ধৃতি দিয়ে সুবর্ণভূমিকে বলেন, রনির অবস্থা খুবই আশঙ্কাজনক। উন্নত চিকিৎসা দিতে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে রেফার করা হয়েছে।’
জানতে চাইলে কোতয়ালী থানার এসআই মিজানুর রহমান সুবর্ণভূমিকে বলেন, ‘বিপ্লব হোসেন রনি নামে এক ব্যবসায়ীর গায়ে পেট্রোল ঢেলে একটি মেয়ে আগুন জ্বালিয়ে দিয়েছে বলে খবর পেয়ে হাসপাতালে এসেছি। পুলিশ বিষয়টি গভিরভাবে খতিয়ে দেখছে।’

আরও পড়ুন