যশোরে ছুরিতে আহত রুবেল মারা গেছেন

আপডেট: 03:14:39 24/04/2018



img
img

স্টাফ রিপোর্টার : যশোরে দুর্বৃত্তদের ছুরির আঘাতে আহত যুবক রুবেল হোসেন মারা গেছেন। গত শুক্রবার তাকে ছুরি মেরেছিল একদল সন্ত্রাসী
রুবেলের পরিবারের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, তিনি ইজিবাইক চালাতেন। কিন্তু পুলিশ বলছে, রুবেলের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের অনেক অভিযোগ রয়েছে।
আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে সাতটার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রুবেল মারা যান। তিনি শহরের রেলগেট পশ্চিমপাড়ার শহিদ ড্রাইভারের ছেলে।
বাবা শহিদ সুবর্ণভূমিকে বলেন, ‘আমার ছেলে রুবেল হোসেন ইজিবাইক চালাতো। গত শুক্রবার দুপুরে জুমার নামাজ পড়ে বাড়ি ফিরছিল সে। এসময় একই এলাকার রমজান, তুহিন, সাইদ, পলাশ, সাগর, লিটন ও মোহন তাকে এলোপাতাড়ি ছুরি মারে। খবর পেয়ে আমরা রুবেলকে উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করি। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় ডাক্তার তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় রেফার করেন। ওই দিনই তাকে আমরা ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাই। সেখানকার ডাক্তার আমাদের জানিয়ে দেন, রুবেলের অবস্থা ভালো। তাকে বাড়ি নিয়ে যাওয়া যেতে পারে। আমরা তাকে যশোর আনার সময় মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের গেটে তার মৃত্যু হয়। লাশ যশোরের পথে রয়েছে।’
জানতে চাইলে চাঁচড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইনসপেক্টর রফিকুল হক সুবর্ণভূমিকে বলেন, ‘রুবেল একজন সন্ত্রাসী ছিল। তার বিরুদ্ধে কোতয়ালীসহ বিভিন্ন থানায় বিস্ফোরক, অস্ত্র, পুলিশ হত্যাচেষ্টা ও মাদকের সাতটি মামলার রয়েছে। সে প্রতিপক্ষ সন্ত্রাসীদের ছুরিকাঘাতে মারা গেছে।’
ঘটনার সঙ্গে জড়িত পলাশ নামে এক সন্ত্রাসীকে ইতিমধ্যে আটক করা হয়েছে। বাকিদের ধরতে পুলিশ তৎপর রয়েছে বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

আরও পড়ুন