যশোরে একরাতে লাশ পড়লো আরো তিনটি

আপডেট: 01:41:05 21/05/2018



img
img
img

স্টাফ রিপোর্টার : রোববার দিনগত রাতে যশোরে আরো তিনটি লাশ পড়েছে। এরা গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছেন।
পুলিশের ভাষ্য, মাদক ব্যবসায়ীদের মধ্যে গোলাগুলিতে এই তিনজন নিহত হন। ঘটনাস্থল সদর উপজেলার খোলাডাঙ্গা ও মণ্ডলগাতির মাঝামাঝি স্থান এবং তরফনওয়াপাড়া।
এর আগে শনিবার দিনগত রাতে গুলিতে নিহত হন এক যুবক। আর শুক্রবার দিনগত রাতে অভয়নগরে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছিলেন তিন মাদক ব্যবসায়ী
কোতয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজমল হুদা, এসআই অরুণকুমার দাস এবং উপশহর ক্যাম্পের ইনচার্জ আবদুর রহিম সুবর্ণভূমিকে যে তথ্য দিয়েছেন, তা হলো : গভির রাতে সদর উপজেলার খোলাডাঙ্গা ও মণ্ডলগাতির মাঝামাঝি ফাঁকা জায়গায় দুই দল মাদক ব্যবসায়ীর মধ্যে বন্দুকযুদ্ধের খবর পায় পুলিশ। ঘটনাস্থলে পুলিশ ফোর্স গেলে অস্ত্রধারীরা পালিয়ে যায়। সেখান থেকে উদ্ধার করা হয় অজ্ঞাত এক ব্যক্তির মরদেহ আর দুটি শাটারগান ও দুই রাউন্ড গুলির খোসা।
অন্যদিকে, একই ধরনের কাহিনি ঘটে সদর উপজেলার তরফনওয়াপাড়া গ্রামের জনৈক নওয়াব আলীর মেহগনিবাগানে। সেখানে হাজির হয়ে পুলিশ দুটি মরদেহ, দুটি পিস্তল, দুই রাউন্ড তাজা গুলি, গুলির খোসা এবং ৪০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করে।
মরদেহ তিনটি আজ সোমবার ভোর চারটা থেকে সাড়ে চারটার মধ্যে জেনারেল হাসপাতালে আনা হয়।
হাসপাতালের জরুরি বিভাগে দায়িত্বরত ডাক্তার কল্লোলকুমার সাহা সুবর্ণভূমিকে বলেন, হাসপাতালে আনার আগেই তিনজনেরই মৃত্যু হয়েছে। তাদের সবার মাথায় গুলিবিদ্ধ হয়।
হাসপাতালের কর্মচারীরা সুবর্ণভূমিকে জানিয়েছেন, গুলিতে নিহত তিন ব্যক্তির বয়সই ৩৫ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে। এদের একজনের গায়ে লাল স্যান্ডো গেনজি ও চেক লুঙি, একজনের গায়ে জাম রঙের হাফ হাতা গেনজি ও সাদা থ্রি-কোয়ার্টার প্যান্ট এবং অন্যজনের খালি গা ও পরনে চেক লুঙি রয়েছে।

ছবি : তারিক হাসান বিপুল

আরও পড়ুন