যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারে আজ দুই আসামির ফাঁসি!

আপডেট: 07:43:39 16/11/2017



img

স্টাফ রিপোর্টার : চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার আলোচিত ইউপি মেম্বার মনোয়ার হোসেন হত্যা মামলার দুই আসামির বৃহস্পতিবার (১৬ নভেম্বর) যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারে ফাঁসি হতে পারে। ইতিমধ্যে তিন জল্লাদ তাদের মহড়া সম্পন্ন করেছে এবং আজ পরিবারের লোকজন শেষ সাক্ষাৎ করবে বলে জানিয়েছে কারাসূত্র। সূত্র আরো জানিয়েছে, রাত ১১টা ৪৫মিনিট নাগাদ ফাঁসি কার্যকরের প্রাথমিক সিদ্ধান্ত রয়েছে কারা কর্তৃপক্ষের।
ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত ওই দুই আসামি হলেন আলমডাঙ্গা উপজেলার দুর্লভপুর গ্রামের আরশেদ সরদারের ছেলে ঝড়– সরদার (৬৫) ও মুরাদ আলীর ছেলে মকিম (৫৫)।
কারাসূত্রে জানা যায়, ১৯৯৪ সালের ২৮ জুন খুন হন আলমডাঙ্গা উপজেলার দুর্লভপুর গ্রামের বাসিন্দা ইউপি মেম্বার মনোয়ার হোসেন। ওই ঘটনায় ঝড়– ও মকিমের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের হয়। দীর্ঘ বিচার প্রক্রিয়া শেষে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ২০০৮ সালের ১৭ এপ্রিল দুই আসামিকে ফাঁসির আদেশ দেন চুয়াডাঙ্গার জেলা ও দায়রা জজ আদালত।
পরবর্তীতে রায়কে চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে আপিল করেন দণ্ডিত দুই আসামি। হাইকোর্ট রায় বহাল রাখায় সুপ্রিম কোর্টেও আপিল করেন আসামিরা। সেখানেও রায় বহাল রেখে আদেশ দেন বিচারক। পরে দ-িত ঝড়– ও মকিম রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষার আবেদন করেও সাড়া পাননি।
কারাসূত্র আরো জানিয়েছে, প্রাণভিক্ষার আবেদন প্রত্যাখান হওয়ার পর আইনানুযায়ী ফাঁসির প্রস্তুতি শুরু হয়। একযোগে ফাঁসি কার্যকর করতে তিন জল্লাদকে প্রস্তুত রাখা হয়েছে। তারা ইতিমধ্যে মহড়া সম্পন্ন করেছেন। এছাড়া আজই পরিবারের লোকজনকে শেষ সাক্ষাতের জন্য ডাকা হয়েছে। তারা দিনের যেকোনও সময় এসে সাক্ষাৎ করে যেতে পারবেন।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলর আবু তালেব জানান, ফাঁসির বিষয়টি এখনও নির্ধারিত নয়। কিছু হলে ব্রিফিং করে জানানো হবে।
তবে, কারাসূত্র জানিয়েছে- ফাঁসি কার্যকর করতে কারা কর্তৃপক্ষ ইতিমধ্যে জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, সিভিল সার্জনের সহায়তা কামনা করে পত্র দিয়েছেন।
জানতে চাইলে যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সালাহউদ্দিন শিকদার বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। কারাগার কর্তৃপক্ষ ভাল বলতে পারবেন।

আরও পড়ুন