দিলু-সুখেনের ভাতিজির আত্মহত্যা

আপডেট: 07:01:05 26/05/2018



img

স্টাফ রিপোর্টার : যশোরে অর্পিতা মজুমদার (১৮) নামে এ কলেজছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।
শুক্রবার দিবাগত রাতে উপশহর ই ব্লকের ৪৪ নম্বর বাসায় আত্মহত্যা করে ওই তরুণী। জেনারেল হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে আজ দুপুরে পরিবারের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে।
অর্পিতা উপশহরের বাসিন্দা বিকাশ মজুমদারের মেয়ে। দাউদ পাবলিক কলেজের দ্বিতীয় বর্ষে লেখাপড়া করতো সে।
কাকা নিলু মজুমদার সুবর্ণভূমিকে বলেন, ‘শুক্রবার দিবাগত রাতে অর্পিতা ঘরের সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দেয়। আমরা পরিবারের লোকজন টের পেয়ে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসি। কিন্তু হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।’

খবর পেয়ে জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন, সদর উপজেলা সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান মিন্টু, পৌর কাউন্সিলর মকসিমুল বারী অপু, যুবলীগ নেতা মঈনুদ্দিন মিঠু প্রমুখ হাসপাতালে যান।
হাসপাতালের জরুরি বিভাগের ডাক্তার আব্দুল্লাহ আল-মামুন সুবর্ণভূমিকে বলেন, হাসপাতালে আনার আগেই মেয়েটির মৃত্যু হয়।
কোতয়ালী থানার এসআই খান আব্দুর রহমান সুবর্ণভূমিকে বলেন, ‘অর্পিতার মৃত্যুর বিষয়টি পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখছে। শোনা যাচ্ছে, এক মুসলিম ছেলের সাথে অর্পিতার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। এই নিয়ে পারিবারিক কলহ ছিল। সে কারণেও মেয়েটি আত্মহত্যা করতে পারে।’
অর্পিতা যশোর জেলা ছাত্রমৈত্রীর সাবেক নেতা সুশান্ত মজুমদার দিলু ও ছাত্রলীগের সাবেক নেতা সুখেন মজুমদারের ভাতিজি।

আরও পড়ুন