নয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ

আপডেট: 05:47:47 15/09/2018



img

সুবর্ণভূমি ডেস্ক : যশোরের চৌগাছা উপজেলার সিংহঝুলি ইউনিয়নের মসিয়ূরনগর গ্রামে জহুরা নেছা টুম্পা (২০) নামে এক তরুণী বধূকে পিটিয়ে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে। টুম্পা নয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন।
থানা পুলিশ সকালে খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।
টুম্পা ওই গ্রামের টুটুল হোসেনের স্ত্রী ও একই উপজেলার ফুলসারা গ্রামের জহির উদ্দিনের মেয়ে।
চাচা জাহিদুল ইসলাম ও প্রতিবেশীরা জানান, প্রায় চার বছর আগে টুটুলের সঙ্গে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয় টুম্পার। এর পর বিভিন্ন সময় স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে গোলযোগ হতো। কয়েকবার টুম্পা বাবার বাড়িতে চলেও গেছে। মৃত্যুর আগে টুম্পা নয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন। গোলযোগের কারণে শুক্রবার গভির রাতে স্বামী টুটুল তাকে মারপিট করেন। একপর্যায়ে তার মৃত্যু হলে স্বামী মৃতদেহের গলায় ফাঁস দিয়ে রান্নাঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলিয়ে রাখেন টুটুল। সকালে টুটুল প্রচার করেন, তার স্ত্রী গলায় ফাঁস দিয়েছেন। প্রতিবেশিরা টুম্পার শরীরে আঘাতের চিহ্ন দেখে পুলিশকে খবর দেন।
চৌগাছা থানার এসআই বিকাশচন্দ্র জানান, খবর পেলে ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। কী কারণে তার মৃত্যু হয়েছে সে বিষয়ে কেউ মুখ না খুললেও বিষয়টি রহস্যজনক। তদন্ত চলছে।
টুম্পার বাবা তার মেয়েকে হত্যা করা হয়েছে বলে পুলিশে অভিযোগ দিয়েছেন।
যশোর কোতয়ালী থানার এসআই মাহবুব আলম জানান, টুম্পার মৃতদেহের ময়নাতদন্ত হয়েছে।

আরও পড়ুন