এক বেডে একাধিক নিউমোনিয়া রোগী নড়াইলে

আপডেট: 01:55:48 24/10/2018



img
img

মৌসুমী নিলু, নড়াইল : নড়াইল সদর হাসপাতালে নিউমোনিয়া রোগীর চাপ বেড়েছে। প্রতিদিন হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসছে নতুন নতুন শিশুরা। হাসপাতালের প্রতিটা বেডে ৩-৪ জন শিশুকে কোনো রকমে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।
গত দুই মাস ধরে নড়াইলের বিভিন্ন এলাকায় শিশুদের মধ্যে নিউমোনিয়া রোগের প্রকোপ দেখা দিয়েছে। রোগী বেড়ে যাওয়ায় চিকিৎসা দিতে হিমসিম খাচ্ছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।
হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, গত দুই মাস ধরে নিউমোনিয়া রোগী বেড়েই চলেছে। সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর মাসে কয়েকশ’ নিউমোনিয়া রোগী চিকিৎসা নিয়েছে এখানে। হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে বেড রয়েছে মাত্র ১১টি। প্রতিদিন গড়ে ২০ থেকে ২২ জন শিশু চিকিৎসা নিতে আসছে। আজ ১১ বেডের বিপরীতে শিশু ভর্তি আছে অর্ধ শতাধিক। এর মধ্যে নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত ৪২ জন।
লোহাগড়া উপজেলার মিঠাপুর গ্রামের পরী খানম জানান, তার সাড়ে চার মাস বয়সের মেয়ে নুসরাতের নিউমোনিয়া হয়েছে। মেয়েকে নিয়ে দুই দিন আগে ভর্তি করা হয়েছে হাসপাতালে। তবে এখনো বেড পাওয়া যায়নি। অনেক কষ্ট করে মেয়ের চিকিৎসা করাচ্ছেন তিনি।
নড়াইল পৌর এলাকার পপি খানম জানান, তার মেয়েকে নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করেও টেনশনে আছেন তিনি। একটি বেডে তিন থেকে চারজন শিশুকে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এতে তাদের অনেক কষ্ট হচ্ছে।
হাসপাতালের নার্স শ্যামলী অধিকারী জানান, শিশু ওয়ার্ডে মোট বেড রয়েছে মাত্র ১১টি। আর বর্তমানে শিশু ভর্তি আছে অর্ধশতাধিক। অল্প জায়গায় এতো বেশি রোগীর চিকিৎসা দেওয়া অসম্ভবপ্রায় । তারপরও চেষ্টা আছে শিশুদের সঠিক চিকিৎসা দেওয়ার।
নড়াইল সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) আ ফ ম মশিউর রহমান বাবু জানান, বেশ কিছুদিন যাবৎ হাসপাতালে রোগীর সংখ্যা অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। হঠাৎ করে শীত পড়তে শুরু করেছে। আগামী কয়েক দিনে নিউমোনিয়া রোগীর আরো বাড়তে পারে বলে তার আশঙ্কা।

আরও পড়ুন