বই খুলে লিখে এরা হবেন ডাক্তার!

আপডেট: 01:59:07 12/08/2018



img
img

স্টাফ রিপোর্টার : মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৩৫। পরীক্ষা চলছে। টেবিলে সবার সামনে বই খোলা। পরীক্ষার্থীরা বই দেখে উত্তর লিখছেন। এরাই হবেন ডাক্তার! মানুষের রোগ নিরাময় করবেন!
হোমিওপ্যাথিক প্যারামেডিকেল চূড়ান্ত পরীক্ষা পর্বের শুরু থেকে শেষ দিন এই দৃশ্য ছিল যশোরের শার্শা উপজেলায়। নাভারন হোমিওপ্যাথিক প্যারামেডিকেল কলেজের প্রিন্সিপাল ডা. ওবায়দুল কাদিরের উপস্থিতিতে এমন দৃশ্য ধরা পড়ে সাংবাদিকদের ক্যামেরায়।
ডা. ওবায়দুল কাদিরের তত্ত্বাবধানে পরিচালিত নাভারন পরীক্ষা কেন্দ্রে শনিবার বেলা ১১টার সময় শুরু হওয়া পরীক্ষায় অতীতের সব রেকর্ড ভেঙে দিয়েছেন পরীক্ষার্থীরা। তারা সবাই সামনে বই রেখে নির্দ্বিধায় উত্তর লিখে দেন। সংবাদ পেয়ে স্থানীয় সাংবাদিকরা কেন্দ্রটিতে গিয়ে অবিশ্বাস্য এই দৃশ্য দেখেন। বই খুলে লেখার ছবি তুলতে গেলে সাংবাদিকদের শুধু বাধাই দেননি, হুমকিও দেন স্বয়ং প্রিন্সিপাল ডা. ওবায়দুর কাদির। এরপর তার অনুসারী সন্ত্রাসীদের দিয়ে পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে সাংবাদিকদের বের করে দেন।
পরে প্রিন্সিপাল ডা. ওবায়দুর কাদিরের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি সাংবাদিকদের সঙ্গে ‘কোনো কথা রলবেন না’ বলে সাফ জানিয়ে দেন। এক পর্যায়ে অসৌজন্যমূলক আচরণও করেন তিনি।
বিষয়টি শার্শা উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা পুলককুমার মণ্ডলকে জানান সাংবাদিকরা। তিনি এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেবেন বলে সাংবাদিকদের আশ্বস্ত করেন।