ডা. ইয়াসিরের অভিযোগ ভিত্তিহীন : হীরক

আপডেট: 05:50:51 11/10/2018



img

স্টাফ রিপোর্টার : ‘মিথ্যা মামলার’ প্রতিবাদে আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে প্রেসক্লাব যশোর কনফারেন্স রুমে সংবাদ সম্মেলন করেছেন আবাসন ব্যবসায়ী এস এইচ বিল্ডার্সের মালিক এস এম রফিকুল ইসলাম হীরক।
সংবাদ সম্মেলন হীরক বলেন, তার গ্রাহক ডা. ইয়াসির আরাফাত আদালতে অভিযোগ করেছেন, তার কোনো ভিত্তি নেই।
তিনি বলেন, ‘একটি ফ্লাটের সম্পূর্ণ টাকা পরিশোধ না হলে তার মালিকানা বুঝিয়ে দেওয়া হয় না। ইয়াসির আরাফাতের সাথে ফ্লাট বাবদ ২৭ লাখ ৫০ হাজার টাকার চুক্তি হয়। কিন্তু তিনি সাকুল্যে ১১ লাখ ৬০ হাজার টাকা প্রদান করে ফ্লাটের মালিকানা দাবি করেন; যা চুক্তির শর্তবহির্ভূত। পরে তিনি কিস্তির টাকা পরিশোধ না করে একপর্যায়ে ফ্লাটটি কিনতে অপরাগতা প্রকাশ ও টাকা ফেরত চান।’
হীরকের দাবি, যেহেতু ইয়াসির আরাফাত তাকে কয়েকদফায় ওই টাকা দিয়েছেন, সেকারণে তিনিও কয়েক দফায় তা পরিশোধ করতে চান। সে অনুযায়ী দুই দফায় দুই লাখ টাকা পরিশোধও করেন। কিন্তু ডা. ইয়াসির আরাফাত পরিশোধিত টাকার বিপরীতে তাকে দেওয়া চেকটি ফেরত দেননি।
এক প্রশ্নের জবাবে হীরক বলেন, প্রায় দেড় মাস তার সঙ্গে ডা. ইয়াসিরের দেখা-সাক্ষাৎ হয়নি। অথচ আদালতে দাখিল করা পিটিশনে ইয়াসির আরাফাত দাবি করেছেন, ৪ অক্টোবর বিকেলে তার বুকে শটগান ঠেকিয়ে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছে। তার এসব অভিযোগ অসত্য এবং ভিত্তিহীন। সিসি টিভি ফুটেজ পরীক্ষা করলে ডা. ইয়াসিরের এই দাবির অসত্যতা প্রমাণিত হবে।
তিনি বলেন, ‘ইয়াসির আরাফাত এই মামলার মাধ্যমে আমার ব্যবসায়িক সুনাম বিনষ্ট এবং সামাজিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করেছেন। সেকারণে আমিও আদালতের দ্বারস্থ হবো।’
সংবাদ সম্মেলনে হীরক ছাড়াও তার প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা, ফ্লাটের গ্রাহক ও ক্রীড়া ব্যক্তিত্বরা উপস্থিত ছিলেন।
প্রসঙ্গত, রফিকুল ইসলাম হীরক যশোরে আবাসন ব্যবসার পথিকৃৎ। যশোরের ক্রীড়াঙ্গনেও তিনি পরিচিত মুখ। দীর্ঘদিন যশোর জেলা ফুটবল দলে গোলকিপার হিসেবে খেলেছেন তিনি।