'আর্থিক দ্বন্দ্বে' খুন হয়েছিলেন তন্ময়

আপডেট: 01:51:36 10/01/2019



img

স্টাফ রিপোর্টার : যশোর শহরের বেজপাড়া এলাকার তন্ময়কুমার নন্দী হত্যাকাণ্ডে জড়িত অভিযোগে লিটন মোল্লা (৩২) নামে এক ব্যক্তিকে আজ ভোরে আটক করেছে যশোর পিবিআই।
২০১৭ সালের ১৪ ডিসেম্বর দুপুরে পুলিশ যশোরের অভয়নগর উপজেলার ভাঙাগেট এলাকা থেকে তন্ময়ের রক্তাক্ত মরদেহ উদ্ধার করেছিল।
আজ বুধবার পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) এসআই স্নেহাশীষ দাস সুবর্ণভূমিকে এ তথ্য দেন।
নিহত তন্ময় অভয়নগর উপজেলার নওয়াপাড়ায় কপোতাক্ষ এন্টারপ্রাইজ নামে একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের সাইট ম্যানেজার। ধরা পড়া লিটন একই প্রতিষ্ঠানের ফোরম্যান হিসেবে কাজ করতেন।
আর্থিক হিসেব সংক্রান্ত দ্বন্দ্বের কারণে তন্ময়কে পরিকল্পিতভাবে খুন করা হয় বলে পুলিশ জানিয়েছে।
নিহতের বাবা বাবলুকুমার নন্দী জানান, ২০১৭ সালের ১৩ ডিসেম্বর রাতে তার ছেলেকে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়। পরদিন দুপুরে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় অভয়নগর থানায় মামলা করতে গেলেও পুলিশ তা গ্রহণ করেনি। পরে আদালতে অভিযোগ দাখিলের পরে ২০১৮ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর অভয়নগর থানা মামলাটি নথিভুক্ত করে। মামলা নম্বর ২২। কিন্তু তারা ঘটনা তদন্ত করে 'কিছু পায়নি'। একই বছরের ২৯ নভেম্বর পিবিআই মামলাটির তদন্তভার গ্রহণ করে।
পিবিআই জানিয়েছে, প্রযুক্তি ব্যবহার করে আজ ভোরে যশোরের মণিরামপুর উপজেলার ঢাকুরিয়া এলাকা থেকে লিটন মোল্লাকে আটক করা হয়। লিটন ওই এলাকার মতিউর রহমানের ছেলে।

আরও পড়ুন