অদম্য মেধাবী সোহেলের জীবনপ্রদীপ নিভতে চলেছে

আপডেট: 07:12:15 10/12/2016



img

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি : অর্থের অভাবে জীবনপ্রদীপ নিভে যেতে চলেছে অদম্য মেধাবী সোহেল রানার।
কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের মেধাবী ছাত্র সোহেল বর্তমানে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় রাজধানীর ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অফ কিডনি ডিজিজ ইউরোলজি (নিকডু)-তে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তার দুটি কিডনিই অকেজো হয়ে গেছে বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন। দ্রুত তার শরীরে অন্তত একটি কিডনি প্রতিস্থাপন না করা হলে অকালেই নিভে যেতে পারে সোহেল রানার জীবন প্রদীপ।
তাকে বাঁচাতে প্রায় দশ লাখ টাকা দরকার বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।
সোহেল রানা ঝিনাইদহ জেলার হরিণাকুণ্ডু উপজেলার তাহেরহুদা ইউনিয়নের গোপীনাথপুর গ্রামের দিনমজুর জমির উদ্দিনের ছেলে। ছেলের চিকিৎসার জন্য বিশাল এই ব্যয়ভার বহন করা একেবারেই অসম্ভব দিনমজুর বাবার।
সোহেল রানা ২০১১ সালে শিশুকলি মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় থেকে জিপিএ ৫ পেয়ে এসএসসি পাশ করে। ২০১৩ সালে সরকারি লালন শাহ কলেজ থেকে এইচএসসি পাশ করে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে ইংরেজি বিভাগে ভর্তি হয়। সোহেল বাবার সঙ্গে দিনমজুরের কাজ করে পড়ালেখার খরচ চালিয়েছেন বলে এলাকাবাসী জানান।
শিশুকলি মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নিয়ামত আলী জানান, সোহেল তার স্কুলের অহঙ্কার। অসহায় ও দিনমজুর বাবার মেধাবী ছেলে সোহেলকে তারা বিনাবেতনে পড়িয়েছেন। স্কুলের শিক্ষকরাও তার প্রতি বিশেষ নজর রাখতেন।
সোহেলের চিকিৎসার জন্য তারা উপজেলার সমস্ত শিক্ষক, জনপ্রতিনিধিসহ সমাজের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের কাছে সহযোগিতার জন্য ইতিমধ্যেই যোগাযোগ করছেন বলেও তিনি জানান।
দিনমজুর বাবা জমির উদ্দিন তার মেধাবী ছেলেকে বাঁচানোর জন্য বিত্তবানদের প্রতি আবেদন জানিয়েছেন।

সোহেলকে সহায়তা পাঠানের ঠিকানা
অগ্রণী ব্যাংক, হামদহ শাখা, ঝিনাইদহ সঞ্চয়ী হিসাব নম্বর ৯৪৭
বিকাশ : ০১৯২৭৯৯০৪৫০
ডাচ-বাংলা : ০১৯২৯৪১৮৮৯৮-৭

আরও পড়ুন