অধ্যক্ষের শাস্তি দাবিতে পাইকগাছায় মানববন্ধন

আপডেট: 04:42:32 19/09/2019



img

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি : পাইকগাছায় রাড়ুলী কলেজিয়েট কেন্দ্র বাতিল ও ‘দুর্নীতিবাজ’ অধ্যক্ষ গোপালচন্দ্র ঘোষের শাস্তি ও রিপোর্টেড হওয়া ২৭ জন পরীক্ষার্থীর ফলাফলের দাবিতে মানববন্ধন হয়েছে।
বৃহস্পতিবার উপজেলা পরিষদের প্রধান ফটকের সামনে এ মানববন্ধনে অংশ নেন গত এইচএসসি পরীক্ষায় রাড়ুলী কেন্দ্রে অংশ নেওয়া রিপোর্টেড শিক্ষার্থীরা।
মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা বলেন, ২০১৯ সালের অনুষ্ঠিত এইচএসসি পরীক্ষায় রাড়ুলী কেন্দ্রে তারা অংশ নেন। কোনো অনিয়ম ছাড়াই পরীক্ষা গ্রহণ হয়। কিন্তু গত ২৭ জুলাই প্রকাশিত ফলাফলে তাদের নাম প্রকাশ না হওয়ায় তারা বিস্মিত হয়ে পড়েন।
উপজেলার চাঁদখালী, রাড়ুলী ও সাতক্ষীরা থানার শালিখা কলেজে ২৭ জন শিক্ষার্থীদের মধ্যে সাদিয়া তানজিম, আরাফা খাতুন, পিংকি নন্দী, মানছুরা খাতুন, ইব্রাহিম, লিটন, নাইম হাসান, নমিতা হালদার, তিথিরানি কর্মকার, সুফিয়া খাতুন, শারমিন আক্তার, জুলেখা খাতুন ও রায়হান জানান, তাদের ইংরেজি প্রথম পত্র পরীক্ষার খাতায় ‘রিপোর্টেড’ লেখা হয়েছে। একই খাতায় দুইরকম হাতের লেখা। যা বোর্ড কর্তৃক নির্ধারিত তদন্ত কমিটির তদন্তে প্রমাণিত বলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন যশোর শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মাধবচন্দ্র রুদ্র। উক্ত শিক্ষার্থীদের ফলাফল প্রকাশ অনিশ্চিত বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পর শিক্ষার্থীরা ১৫ সেপ্টেম্বর খুলনা প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলন করেন।
সাংবাদিক সম্মেলন ও মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা দাবি করেন, চাঁদখালী কলেজের অধ্যক্ষ অন্নদাস শংকর, প্রভাষক বিল্লাল হোসেন, রাড়ুলী আরকেবিকে হরিশ্চন্দ্র ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ গোপালচন্দ্র ঘোষদের অনিয়ম, দুর্নীতির কারণে তাদের এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।
এ ব্যাপারে কেন্দ্র সচিব অধ্যক্ষ গোপালচন্দ্র ঘোষ বলেন, পরীক্ষা কেন্দ্রে কোনো অনিয়ম হয়নি। কী কারণে রিপোর্টেড হয়েছে তা আমার জানা নেই।’

আরও পড়ুন