অবিবাহিতা কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা, লোহাগড়ায় তোলপাড়

আপডেট: 08:49:40 06/01/2017



img

লোহাগড়া (নড়াইল) প্রতিনিধি : লোহাগড়ার গ্রামে ১৪ বছর বয়সী অবিবাহিতা এক কিশোরী ধর্ষণের শিকার হয়ে পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে বলে অভিযোগ করা হচ্ছে। এ ঘটনায় এলাকায় তোলপাড়ের সৃষ্টি হয়েছে ।
কিশোরীর মা সাংবাদিকদের বলেন, ‘৫/৬ মাস আগে প্রতিবেশী ছলেমান থান্দারের ছেলে কেরামত থান্দার আমার মেয়েকে বাড়িতে একা পেয়ে ধর্ষণ করে। লোকলজ্জার ভয়ে মেয়ে বিষয়টি গোপন করে যায়। মেয়ের শারীরিক পরিবর্তন ঘটলে গত সোমবার তাকে স্থানীয় বিডাব্লিউএইচসি ক্লিনিকে নিয়ে যাওয়া হয়। স্বাস্থ্য কেন্দ্রের চিকিৎসক জানান, মেয়েটি পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা।’
কথিত ধর্ষিতা কিশোরী বলেছে, ‘আত্মহত্যা করা ছাড়া আমার আর কোনো পথ নেই। লোকলজ্জায় আমি কোথাও বের হতে পারছি না।’
বক্তব্য জানার জন্য শুক্রবার এলাকায় গিয়ে কথিত ধর্ষক কেরামত থান্দারকে বাড়িতে পাওয়া যায়নি। তার দ্বিতীয় স্ত্রী মিতা সাংবাদিকদের বলেন, ‘বিষয়টি মীমাংসার জন্য আমরা চেষ্টা করছি। প্রয়োজনে আমার স্বামীর সাথে মেয়েটির বিয়ে দেব।’
কথিত ধর্ষকের চাচা স্থানীয় মাতবর মজিবর রহমান থান্দার বলেন, ‘আমরা অভিযোগের সত্যতা পেয়েছি। উভয় পরিবারের সম্মতিতে ছেলে-মেয়ের বিয়ে দিয়ে সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করছি।’
লোহাগড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘ঘটনার ব্যাপারে কেউ থানায় অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

আরও পড়ুন