ব্যাংকে টাকা তুলতে এসে প্রতারণার শিকার

আপডেট: 07:31:39 20/11/2017



কোটচাঁদপুর (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি : কোটচাঁদপুরে রেনুকা বেগম (৩০) নামে এক মহিলা এনজিও থেকে ঋণের পঞ্চাশ হাজার টাকার চেক ব্যাংকে ভাঙাতে এসে প্রতারকের খপ্পরে পড়ে সমুদয় টাকা খুইয়েছেন।
প্রতারণার এই ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার সোনালী ব্যাংক কোটচাঁদপুর শাখায়।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, কোটচাঁদপুর উপজেলার এলাঙ্গী গ্রামের আলতাফ হোসেনের স্ত্রী রেনুকা বেগম শিশু নিলয় নামে একটি এনজিও থেকে পঞ্চাশ হাজার টাকা ঋণ গ্রহণ করেন। এনজিওটি তাকে পঞ্চাশ হাজার টাকার একটি চেক প্রদান করে। তিনি চেকটি ভাঙাতে সোমবার সোনালী ব্যাংক কোটচাঁদপুর শাখায় আসেন। তখন ৩৩-৩৫ বছর বয়সী এক যুবক নিজেকে ব্যাংক স্টাফ পরিচয় দিয়ে জিজ্ঞাসা করে- তিনি শিশু নিলয় থেকে চেক নিয়ে এসেছেন কি না? হা সূচক জবাব দিলে যুবকটি কাউন্টার থেকে ক্যাশ করার কথা বলে তার কাছ থেকে চেকটি নিয়ে তাকে অপেক্ষা করতে বলে। যুবকের কথা মতো চেকটি তাকে দিয়ে রেনুকা ব্যাংকের সোফায় অপেক্ষা করতে থাকেন। ইতিমধ্যে প্রতারক যুবক চেকের উল্টো পিঠে রবিউল ইসলাম নাম সই করে কাউন্টার থেকে টাকা তুলে সটকে পড়ে। দীর্ঘ সময় অপেক্ষার পরও যুবকটি না আসায় তিনি বুঝতে পারেন প্রতারণার শিকার হয়েছেন।
ব্যাংকের সিসি ক্যামেরায় প্রতারক যুবকের ছবি দেখে তার বয়স ৩৩-৩৫ বছর বলে সকলের ধারণা করছে।
থানার অফিসার ইনচার্জ বিপ্লব কুমার সাহা জানান, এ ব্যাপারে রেনুকা বেগম একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

আরও পড়ুন