অভয়নগরে ‘গোলাগুলিতে’ মাদক ব্যবসায়ী নিহত

আপডেট: 01:24:34 18/06/2018



img

স্টাফ রিপোর্টার : যশোরের অভয়নগর উপজেলার প্রেমবাগ এলাকায় কথিত বন্দুকযুদ্ধে শহিদুল ইসলাম (৩৪) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন।
পুলিশের দাবি, নিহত ব্যক্তি মাদক ব্যবসায়ী। দুই দল মাদক ব্যবসায়ীর মধ্যে বন্দুকযুদ্ধে মারা পড়েন শহিদুল। তবে তার স্বজন বলছেন, ঈদের দিন এলাকার কয়েক ব্যক্তি শহিদুলকে ধরে পুলিশে দেয়। আজ সকালে তারা গুলিবিদ্ধ হয়ে শহিদুলের মৃত্যুর খবর পান।
পুলিশের ভাষ্য, গতকাল রোববার দিনগত রাত সাড়ে তিনটার দিকে বন্দুকযুদ্ধের ঘটনাটি ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে একটি পাইপগান, দুই রাউন্ড গুলি ও ১২০ পিস ইয়াবা উদ্ধারের দাবিও করা হচ্ছে। বলা হচ্ছে, দুই গ্রুপ মাদক ব্যবসায়ীর মধ্যে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।
নিহত শহিদুল অভয়নগর উপজেলার বুইকারা গ্রামের নুর ইসলাম খাঁর ছেলে।  মাদক ব্যবসায়ী হিসেবে এলাকায় তার পরিচিতি রয়েছে। তার বিরুদ্ধে দশটির বেশি মামলা রয়েছে বলে পুলিশ জানায়।
নিহতের ভাই ভাইপো আনিসুর রহমান বলেন, ‘ঈদের দিন বেলা ১২টার দিকে এলাকার আজিম, নয়ন, ওলিসহ ৪-৫ জন শহিদুলকে নিজ বাড়ি থেকে ধরে পুলিশে দেয়। এর পর থেকে তার আর সন্ধান পাওয়া যায়নি। আজ সকালে শহিদুলের মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়।’
প্রতিবেশী বকুল, মাসুম প্রমুখও একই কথা বলেন।
তবে অভয়নগর থানার ওসি শেখ গনি মিয়া বলেন, ‘রোববার রাত সাড়ে তিনটার দিকে আমরা জানতে পারি, প্রেমবাগ এলাকায় দুই দল মাদক ব্যবসায়ীর মধ্যে বন্দুকযুদ্ধ চলছে। পরে পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে গেলে মাদক ব্যবসায়ীরা পালিয়ে যায়। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ একজনের লাশ উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।’
তিনি আরো বলেন, ‘ঘটনাস্থল থেকে একটি পাইপগান, দুই রাউন্ড গুলি ও ১২০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে।’
অভয়নগর থানা আজ দুপুরে শহিদুলের লাশ আনে যশোর জেনারেল হাসপাতালে।

আরও পড়ুন